Home লাইফস্টাইল টকদই কার সঙ্গে খেলে হবে সাড়ে সর্বনাশ!

টকদই কার সঙ্গে খেলে হবে সাড়ে সর্বনাশ!

by বাংলা টুডে ডেস্ক
১৭৩ views

লাইফস্টাইল ডেক্স:

গরমে শরীর ভালো রাখতে টক দইয়ের উপর ভরসা করেন অনেকেই। যারা আবার একটু সচেতন, তারা ডায়েট চার্টে দই রাখেন সব বেলাতেই। আবার চৈত্রের ভ্যাপসা গরমে চাঙ্গা থাকতে হলে ভরসা একমাত্র টকদই। অনেক সময় রাস্তায় মোড়ে মোড়ে মাটির পাত্রে করে টকদই বিক্রিও করতে দেখা যায় দুপুরের দিকে।

রোদ থেকে বাড়ি ফিরে একগ্লাস ঠা-া ঘোল যেন অমৃতের সমান মনে হয়। এক বাটি টকদইতে আছে ক্যালসিয়াম, ভিটামিন বি-২, ভিটামিন বি-১২, ম্যাগনেসিয়াম এবং পটাসিয়াম। আর গরমের সময় দই খেলে শরীর ঠা-া রাখার পাশাপাশি হজমও করতে সহজ হয়। তবে বেশ কিছু খাবার আছে যেগুলোর সঙোগ টকদই খেলে হিতে বিপরীত হয়ে যাবে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, দইয়ের সঙ্গে এই ৫ ধরনের খাবার খেলে আমাদের শরীরে টক্সিন তৈরি হয়, যা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করে দেয়। তাই চলুন জেনে নেই কোন কোন খাবারগুলোর সঙ্গে টকদই একদমই যায় না।

মাছ ও দই একসঙ্গে না
দইয়ের সঙ্গে মাছ খেতে নেই বলে আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে উল্লেখ পাওয়া যায়। মাছ-দই একসঙ্গে খেলে শরীরে নানা কুপ্রভাব পড়ে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, মাছ ও দই দুটোই প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার। তাই একসঙ্গে না খাওয়াই উচিত। এতে বদহজম ছাড়াও পেটের নানা সমস্যা হতে পারে।

টক দই ও পেঁয়াজ কখনওই এক সঙ্গে না
গরমের সময় রায়তা সকলেই পছন্দ করেন। তবে ভালো ফল পেতে হলে এই খাবারটি খাবেন না। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে, দুধ ও পেঁয়াজ এক সঙ্গে যদি খান, তাহলে অ্যাসিডিটির সমস্যায় পড়তে পারেন। টকদই এমনিতেই ঠা-া, আর পেঁয়াজ শরীরের তাপ বাড়িয়ে দেয়। তাই তো এই দুই ধরনের খাবার একসঙ্গে খেলে বিপরীত প্রতিক্রিয়া হতে পারে। ঠা-া এবং গরমের মিশ্রণে ত্বকেরও সমস্যাও দেখা দিতে পারে। তাই এই খাবার না খাওয়াই ভালো।

আমের সঙ্গে টকদই না
আসছে বৈশাখ। বাজারে মিলবে পাকা আম। অনেকে অবশ্য দুপুরের খাবারে আম-দই রাখেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই দুই খাবার কখনই একসঙ্গে খাওয়া উচিত নয়। যদিও গরমকালে আমের সঙ্গে দই খেতে বেশ ভালোই লাগে। তবে আম এবং দই একসঙ্গে খেলে শরীরে নানা সমস্যা দেখা দেয়। আসলে এই দুই খাবার একে অপরের থেকে একেবারে ভিন্ন।

ভাজাপোড়া খাবারের সঙ্গে দই
আমদের দেশে আলুর পরোটার সঙ্গে অনেকেই টকদই খান। আয়ুবেদ বলে, এই দুই খাবার একসঙ্গে খেলে হজমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। টকদইয়ের সঙ্গে তেলে ভাজা বা কাবাব জাতীয় খাবার খেলে হজমশক্তি কমে যায়। তাতে করে পেট ফুলে-ফেঁপে উঠতে পারে। ক্লান্তিও বাড়ে। তাই সুস্থ থাকতে ভুলেও টক দইয়ের সঙ্গে উপরিউক্ত খাবারগুলি খাবেন না।

আরো পড়ুন

সম্পাদক: শুভ্র মেহেদী

মোবাইল: ০১৯৮৫৮২৭৮৩০
ই-মেইল: jamalpur.banglatoday.2022@gmail.com

মিডিয়া ক্যাম্পাস, পৌরসুপার মার্কেট (২য় তলা), রানীগঞ্জ বাজার, তমালতলা, জামালপুর।

Developed by Media Text Communications