rockland bd

ফল বাতিল, ঘ ইউনিটে উত্তীর্ণদের ফের পরীক্ষা দিতে হবে

0

ঢাকা, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকম


প্রশ্ন ফাঁসের জেরে গত কয়েকদিনের আন্দোলন ও সমালোচনার পর আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ঘ ইউনিটে নতুন করে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিন কমিটি। তবে এক্ষেত্রে ভর্তি পরীক্ষায় পাশ করা সাড়ে ১৮ হাজার শিক্ষার্থীদের পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে।

আজ মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে ডিন কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

গত ১২ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আজ সকাল ১০টায় ভর্তি পরীক্ষা শুরুর আগে ৯টা ১৭ মিনিটে ওই পরীক্ষার উত্তরসহ প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়। পরে প্রশ্নপত্র যাচাই করে দেখা হয় পরীক্ষার আগে ফাঁস হওয়া প্রশ্নের সঙ্গে ৭২টি প্রশ্ন ও উত্তর হুবহু মিলেছে।

গণমাধ্যমে প্রশ্নফাঁসের সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় বিষয়টি অনুসন্ধানের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সামাদকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ওই কমিটি তার অনুসন্ধানে প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পায়।

এই প্রমাণ পাওয়ার পরও কর্তৃপক্ষ ১৬ অক্টোবর ঘ ইউনিটের ফল প্রকাশ করে। এ বছর ঘ ইউনিটে ১৬১৫টি আসনের বিপরীতে আবেদনকারী ছিলেন ৯৫ হাজার ৩৪১ জন। এর মধ্যে পাশ করে ১৮ হাজার পরীক্ষার্থী।

প্রশ্নপত্রের বিষয়টি সুরাহা না করে ওই পরীক্ষার ফল প্রকাশ করায় শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ শুরু করে। পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে আইন অনুষদের তৃতীয় বর্ষের একজন ছাত্র অনশন শুরু করে। সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ ফের পরীক্ষা নেয়ার জন্য কর্তৃপক্ষকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়।

ছাত্রলীগ যাচাই-বাছাই সাপেক্ষে আবার পরীক্ষা নেয়ার দাবিসহ চার দফা দাবি জানায়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী ওই সময় ছাত্রলীগের দাবির বিষয়ে একমত পোষণ করেন। উপাচার্য দেশে এলে তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানান।

তবে সোমবার (২২ অক্টোবর) উপাচার্য দেশে এসে আজ অধিকতর একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। ওই কমিটির প্রধান করা হয় প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাসরিন আহমাদকে। কিন্তু ওই কমিটি আগের বছর অনুষ্ঠিত ‘ঘ’ ইউনিটের প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্তে থাকলেও তারা প্রতিবেদন জমা দেয়নি।

আর এইচ

Comments are closed.