rockland bd

অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখতে লকডাউনে যাবে না ভারত

0

বিদেশ ডেস্ক,  বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর: ভারতে নতুন শনাক্ত করোনা পজিটিভ রোগীর সংখ্যা গতকাল আগের সব রেকর্ড ভেঙে প্রায় ১ লক্ষ ৮৫ হাজারে গিয়ে ঠেকেছে। মারাও গেছেন ১০২৭ জন, যাতে দেশে কোভিডে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ১ লক্ষ ৭২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।
তবে করোনার এই দ্বিতীয় ধাক্কায় পরিস্থিতি চরম উদ্বেগজনক হয়ে উঠলেও কেন্দ্রীয় সরকার যে পূর্ণ লকডাউন জারি করছে না, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বিশ্ব ব্যাঙ্কের সঙ্গে এক আলোচনায় তা জানিয়ে দিয়েছেন।
কিন্তু যে সব রাজ্যে পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ তারা নিজেদের মতো ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে – যেমন মুম্বাইসহ গোটা মহারাষ্ট্রে গতকাল রাত আটটা থেকে প্রায় লকডাউনের মতোই নানা বিধিনিষেধ চালু হয়ে যাচ্ছে।
বস্তুত ভারতে করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা গত বছরের চেয়েও অনেক বেশি ব্যাপক আকারে ও অনেক দ্রুত গতিতে আঘাত হেনেছে – গত এক সপ্তাহ ধরে প্রায় রোজই আগের রেকর্ড ভেঙে নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা।
ভারতে এযাবত মোট রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৪০ লক্ষ, যা ব্রাজিলকেও ছাপিয়ে গেছে – এবং তার মধ্যে ৯.২৪ শতাংশ এই মুহুর্তে অ্যাকট্ভি কেস, অর্থাৎ তারা এখনও রোগের সঙ্গে লড়ছেন।
এই মুহুর্তে কোভিড পরিসংখ্যান গত বছরের চেয়েও অনেক খারাপ হওয়া সত্ত্বেও জাতীয় পর্যায়ে যে দেশব্যাপী লকডাউন জারির কথা ভাবা হচ্ছে না, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন।
বিশ্ব ব্যাঙ্কের প্রেসিডেন্ট ডেভিড মালপাসের সঙ্গে এক ভিডিও বৈঠকে মিস সীতারামন বলেন, ভারত কোভিডের মোকাবিলা করবে টেস্টিং, ট্র্যাকিং, ট্রিটমেন্ট, টিকা আর কোভিড-সম্মত আচরণবিধি পালনে জোর দিয়ে – লকডাউন দিয়ে নয়।
তার কথায়, “যতই দ্বিতীয় ধাক্কা আসুক, আমাদের স্পষ্ট কথা হল ভারত বড় আকারে কোনও লকডাউনে যাবে না।
অর্থনীতির চাকাকে আমরা স্তব্ধ করতে চাই না।” খবর বিবিসির।
আস / বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর

Comments are closed.