rockland bd

হেফাজত নেতাকর্মীদের ধরপাকড়ের অভিযোগ

0

 ঢাকা, বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর: সম্প্রতি হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে নাশকতা বা সহিংসতার অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে সর্বশেষ গতকাল ৬০ জনকে আটক করা হয়েছে।
হেফাজত নেতারা অভিযোগ করেছেন, তিন দিন ধরে হেফাজত নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তার অভিযান চালানো হচ্ছে এবং দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে তাদের প্রায় দু’শ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, হেফাজতের কর্মসূচিতে সরকারি বিভিন্ন অফিসে অগ্নিসংযোগ সহ সহিংসতার ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে।
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভারত সফরের সময় গত ২৬শে মার্চ থেকে তিন দিন ধরে হেফাজতের কর্মসূচিকে ঘিরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চট্টগ্রামের হাটহাজারী এবং ঢাকার বায়তুল মোকাররম এলাকায় ব্যাপক সহিংসতা এবং কমপক্ষে ১৭ জনের প্রাণহানি হয়।
হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়াতেই ৫১টি মামলা করা হয়েছে শত শত অজ্ঞাতনামাকে অভিযুক্ত করে। সেখানে রেলস্টেশন, ভূমি অফিস এবং পুলিশের থানাসহ বিভিন্ন সরকারি অফিসে আক্রমণ, ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগসহ নাশকতার নানা অভিযোগ রয়েছে মামলাগুলোতে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ এসব মামলায় জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে সর্বশেষ ৬০ জনকে আটক করার কথা জানিয়েছে। এর আগে গত দু’দিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একশো জনের বেশি আটক করা হয়েছে।
হেফাজত ইসলামের একজন কেন্দ্রীয় নেতা সিরাজুদ্দিন আহমাদ অভিযোগ করেছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হাটহাজারী এবং ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় হেফাজতের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার অভিযান চালানো হচ্ছে। তিনি বলেন, “এখন সরকার সারাদেশে বিভিন্ন মামলা দিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের হয়রানি করতেছে। এবং ইতিমধ্যে প্রায় দুইশো’র মতো গ্রেপ্তার করে ফেলেছে।”
ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হাটহাজারীসহ বিভিন্ন জায়গায় সহিংসতার অভিযোগে মামলাগুলোতে পুলিশ অভিযুক্তদের চিহ্নিত করে আটক করার কথা বলছে।

এদিকে মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেন, ব্রহ্মণবাড়িয়া, হাটহাজারীসহ বিভিন্ন জায়গায় যে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে, সেই অভিযানে মূলত সরকার বিরোধী এবং বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।
এক প্রেসব্রিফিংয়ে এর জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাম্প্রতিক সময়ে ধর্মের নামে যারা সহিংসতা করেছে, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদেরকেই আইনের আওতায় আনছে। খবর বিবিসির।
আস / বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর

Comments are closed.