rockland bd

কঠোর লকডাউনে জরুরি সেবা ছাড়া সব বন্ধ থাকবে

0

ঢাকা, বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর: আগামি ১৪ এপ্রিল থেকে ‘কঠোর লকডাউনের’ মধ্যে জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান ছাড়া সরকারি-বেসরকারি সব অফিস বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন৷
গতকাল জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এবার কঠোর লকডাউনে যাচ্ছে সরকার৷ সংক্রমণ রোধে সবাইকে এর আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে ৷ এক সপ্তাহের লকডাউন শেষের আগের দিন ‘রোববারের মধ্যে কঠোর লকডাউনের’ প্রজ্ঞাপন জারি করার পরিকল্পনার কথা জানান তিনি৷
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও প্রায় একই কথা বলেন৷ শুক্রবার সরকারি বাসভবনে করা এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ভয়াবহ রূপ নেওয়ায় এবং জনগণের অবহেলা ও উদাসীনতার কারণে সরকার ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউন’ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে৷
বৃহস্পতিবার করোনাভাইরাস সংক্রমণে ৭৪ জনের মৃত্যুর সংবাদের পর মহামারি থেকে মানুষকে বাঁচাতে সামনে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হতে পারে বলে সতর্ক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৷
এর আগে গত রোববার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনে ১১ দফা নিষেধাজ্ঞায় সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালত, ব্যাংক জরুরি প্রয়োজনে সীমিত পরিসরে খোলা রাখার সুযোগ দেওয়া হয় ৷
পহেলা বৈশাখ ও রোজার আগে দোকান-পাট খুলতে কয়েকদিন ধরেই বিক্ষোভ চালিয়ে আসছিলেন দোকান মালিক ও কর্মচারীর৷
দাবির মুখে বৃহস্পতিবার ‘কঠোর স্বাস্থ্যবিধি’ প্রতিপালনসাপেক্ষে লকডাউনের মধ্যেও দোকানপাট ও শপিংমলও খোলা রাখার সিদ্ধান্ত দেয় সরকার৷
তাই ৯ এপ্রিল থেকে ১৩ এপ্রিল সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখা যাবে ৷ খবর ডয়েচে ভেলের।
আস / বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর

Comments are closed.