rockland bd

বৃটিশ রানির স্বামী প্রিন্স ফিলিপ মারা গেছেন

0

বিদেশ ডেস্ক, বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর: রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ, ৯৯ বছরে গতকাল মারা গেছেন। রানির বাসভবন বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে একথা ঘোষণা করেছে।
প্রিন্স ফিলিপ ১৯৪৭ সালে প্রিন্সেস এলিজাবেথকে বিয়ে করেন। এর পাঁচ বছর পর প্রিন্সেস এলিজাবেথ ব্রিটেনের রানি হন।
ব্রিটিশ রাজপরিবারের ইতিহাসে তিনিই কোন রাজা বা রানির সবচেয়ে দীর্ঘদিনের জীবনসঙ্গী ছিলেন।
বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে: “মহামান্য রানি খুবই দুঃখের সাথে তাঁর প্রিয় স্বামী প্রিন্স ফিলিপ, ডিউক অফ এডিনবারার মৃত্যুর খবর ঘোষণা করেছেন। “ডিউক, উইন্ডসর কাসেলে শান্তিপূর্ণভাবে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।”
বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে গতকার শুক্রবার দুপুর বারোটার কিছু পরই দেয়া এই বিবৃতিতে জানানো হয় ”রানি গভীরভাবে শোকাহত”।
প্রিন্স ফিলিপের শেষ কৃত্য হবে উইন্ডসরের সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে, তবে কবে সেটা হবে সেই তারিখ এখনও জানানো হয়নি।
তবে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর অন্ত্যেষ্টি হবে না এবং সাধারণের শ্রদ্ধা জানানোর তাঁর মরদেহ শায়িত রাখা হবে না।
কিন্তু রাজ পরিবারের নিয়ম অনুযায়ী এবং প্রিন্স ফিলিপের ইচ্ছা অনুযায়ী শেষ কৃত্য না হওয়া পর্যন্ত তাঁর মরদেহ সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে শায়িত রাখা হবে।
বাকিংহাম রাজপ্রাসাদের পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে।
বহু মানুষ বাকিংহাম প্রাসাদের ফটকে এবং উইন্ডসর প্রাসাদের বাইরে ফুল রেখে প্রিন্স ফিলিপের প্রতি তাদের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন।
প্রিন্স ফিলিপ শারীরিক অসুস্থতার কারণে লন্ডনের কিং এডওয়ার্ড হাসাপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন এবছরের ১৬ই ফেব্রুয়ারি। পরে লন্ডনে হৃদরোগের জন্য বিশেষ হাসপাতাল সেন্ট বার্থলোমিউ হাসপাতালে তার পুরনো হৃদযন্ত্রের সমস্যার কারণে তার সফল অস্ত্রোপচারও হয়েছিল।
এক মাস চিকিৎসার পর ১৬ই মার্চ তিনি উইন্ডসর কাসেলে ফিরে যান। সেখানেই শুক্রবার তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। খবর বিবিসির।
আস / বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর

Comments are closed.