rockland bd

ভারত থেকে আড়াই লাখ টন চাল আমদানি করছে বাংলাদেশ

0

বিদেশ ডেস্ক,  বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর: বাংলাদেশে এবছর ধানের উৎপাদন কম হওয়ার কারণে ঘাটতি পূরণ করতে কয়েক লাখ টন চাল রপ্তানি করবে ভারত।
এখনও পর্যন্ত চূড়ান্ত হয়েছে আড়াই লাখ টন রপ্তানির চুক্তি। এর মধ্যে দেড় লাখ টন চাল রপ্তানি করবে সরকারি কৃষি সমবায় বিপণন সংস্থা ন্যাফেড। তাদের সঙ্গে আরও এক লক্ষ টন চাল রপ্তানি করার বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত হয় নি।
বাংলাদেশ সরকার চাইছে সিংহভাগ চাল সরকারি ন্যাফেডের কাছ থেকেই নিতে।
যদিও ভারতের দুটি বেসরকারি রপ্তানিকারকও বাংলাদেশে চাল রপ্তানির সুযোগ পেয়েছে টেন্ডারের মাধ্যমে।
বাংলাদেশও চাল রপ্তানির ওপরে আগে যে শুল্ক নিত, সেটা ৬২.৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২৫ শতাংশে নামিয়ে এনেছে – সেই সুবিধাও ভারতের রপ্তানিকারকরা পাচ্ছেন।
ভারতের চাল রপ্তানিকারকদের সংগঠন অল ইন্ডিয়া রাইস এক্সপোটার্স অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাহী পরিচালক ভিনোদ কুমারের কথায়, “বাংলাদেশে এবছর বন্যার কারণে ধান উৎপাদন কম হয়েছে। সেই ঘাটতি পূরণেই তারা চাল আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে এটা কিন্তু মূলত সিদ্ধ চাল। বাংলাদেশ এবছরও বাসমতি চাল নিজেদের চাহিদা পূরণ করে রপ্তানি করছে।”
‘ন্যাফেড ‘ – এর সঙ্গে দেড় লক্ষ টন চাল রপ্তানির যে আলোচনা চূড়ান্ত হয়েছে, সেই চাল কী দরে রপ্তানি করা হবে তা এখনও চূড়ান্ত হয় নি বলেই ন্যাফেডের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, “দেড় লাখ টন রপ্তানি চূড়ান্ত হলেও তার দর এখনও ঠিক হয় নি। বাংলাদেশের খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রাইসিং কমিটি সেটা ঠিক করবে। আশা করছি দু’এক দিনের মধ্যেই চুক্তি সই হয়ে যাবে। এই চালটা মূলত সিদ্ধ চাল।”
দুটি বেসরকারি সংস্থাও ৫০ হাজার টন করে চাল রপ্তানি করার অর্ডার পেয়েছে। খবর বিবিসির।
আস / বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর।

Comments are closed.