rockland bd

হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে মোটর শোভাযাত্রায় ট্রাম্প, ‘উন্মাদনা’ বললেন চিকিৎসক

0

ঢাকা, বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর: মেরিল্যান্ডের ওয়াল্টার রিড হাসপাতালের বাইরে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন করোনাভাইরাসে সংক্রমিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ ঘটনায় হাসপাতালের একজন চিকিৎসক উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।
হোয়াইট হাউসের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি জাড ডিরি বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তাঁর সমর্থকদের অভিবাদন জানাতে মোটর শোভাযাত্রায় যোগ দেন এবং এরপরই আবার হাসপাতালে ফিরে গেছেন।
ভিডিওতে দেখা গেছে, ট্রাম্প মাস্ক পরে গাড়িতে বসে আছেন। হাত নাড়ছেন সমর্থকদের উদ্দেশে। কোভিডে আক্রান্ত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের গাড়িতে সিক্রেট সার্ভিসের লোকজনও রয়েছেন।
ভিডিওতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে হাসপাতালে নেওয়ার পর থেকেই বাইরে রাস্তায় তাঁর সমর্থকদের জড়ো হতে দেখা যায়। আমেরিকার পতাকা গায়ে জড়িয়ে, কেউ কেউ মাস্ক পরে, কেউ কেউ মাস্ক না পরে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দ্রুত সেরে উঠার জন্য স্লোগান তার সমর্থকেরা। পতাকা মোড়া গাড়ির বহর নিয়েও হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় একের পর এক মোটর শোভাযাত্রায় যোগ দেন তারা।
ওয়াল্টার রিড হাসপাতালের চিকিৎসক জেমস ফিলিপস ট্রাম্পের এমন মোটরযাত্রাকে ‘উন্মাদনা’ বলেছেন। তিনি বলেন, গাড়ির মধ্যে থাকা প্রত্যেকের জীবন এতে ঝুঁকিতে পড়বে। ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টিনে না থেকে রাজনৈতিক এমন নাটকের জন্য কেউ মারাও যেতে পারে বলে এই চিকিৎসক মনে করেন।
প্রেসিডেন্সিয়াল হিস্টোরিয়ান মাইকেল বিশ্লস এক টুইটে বলেন, ‘কেন একজন অসুস্থ প্রেসিডেন্ট সমর্থকদের অভিবাদন জানাতে হাসপাতালের বাইরে যাবেন? গাড়ির মধ্যে থাকা সিক্রেট সার্ভিসের লোকজনকে কেন তিনি স্বাস্থ্যঝুঁকিতে ফেলবেন?’
প্রতিনিধি পরিষদে ডেমোক্রেটদের চেয়ারম্যান হাকিম জেফরিস টুইট করে বলেছেন, ‘(করোনায়) যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ২ লাখ ৫ হাজার মানুষ মারা গেছেন। আমাদের প্রয়োজন নেতৃত্ব। আমাদের ফটো প্রদর্শনী প্রয়োজন নেই।’
তবে, সমালোচনার মুখে ট্রাম্প টুইটারে এক ভিডিওতে বলেছেন, সমর্থকদের তিনি ‘সারপ্রাইজ’ দিচ্ছেন। তিনি আরও বলেন, সংক্রমিত হয়ে কোভিড ১৯ রোগ নিয়ে তিনি অনেক জেনেছেন। স্কুলে গিয়ে জানার মতো করে জেনেছেন। বিষয়টি সবাইকে জানাবেনও বলেন ট্রাম্প।
কোভিড-১৯ এ সংক্রমিত হলে রোগীদের কমপক্ষে ১৪ দিনের জন্য হলেও আইসোলেশনে থাকার নিয়ম মানা হয়। এ সময়টিতে তাঁরা অন্যদের সংক্রমিত করার উচ্চ ঝুঁকিতে থাকেন। শুক্রবার সকালেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সংক্রমণের কথা জানানো হয়েছে। এরপর তাঁর উপসর্গ নাজুক বিবেচনা করেই হাসপাতালে স্তানান্তরিত করা হয়।
আস / বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর।

Comments are closed.