rockland bd

শাহজাদপুরে কৃষকের মৃত্যু পরিবারের দাবী হত্যা

0

মাসুদ মোশাররফ, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার নরিনা ইউনিয়নের কাংলাকান্দি গ্রাম থেকে পুলিশ রবিবার সকালে নাজিম উদ্দিন (৬০) নামের এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করেছে। তিনি ওই গ্রামের মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে। এ ঘটনায় নিহতর পরিবারের দাবী তাকে মারপিট ও অন্ডকোষে আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। অপরদিকে প্রতিপক্ষের লোকজন তাদের এ দাবী অস্বীকার করে বলছেন পাওনা টাকা চাইতে যাওয়ার পথে তারা নিজেরাই তার অন্ডকোষে আঘাত করে হত্যার পর তাদের আসামী করে মিথ্যা হত্যা মামলা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে নিহতর স্ত্রী নূরজাহান বলেন, এ দিন ভোরে তিনি ও তার স্বামী নাজিম উদ্দিন শরিষা বিক্রির পাওনা টাকা চাইতে নারায়ণদহ যাওয়ার সময় মৃত সাইদুল ইসলামের বাড়ির সামনে পৌছালে পূর্ববিরোধের জের ধরে ওই বাড়ির ভিতর থেকে তার মেয়ের জামাই আব্দুর রউফ গং বের হয়ে এসে তাদের উপর হামলা চালিয়ে বেধরক মারপিট ও অন্ডকোষে আঘাত করে। সজ্ঞাহীন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

অপরদিকে নিহতর ছেলে হাবিবুর রহমান মিন্টু ও মেয়ে নাসিমা খাতুন অভিযোগ করে বলেন, কিছুদিন আগে আব্দুর রউফের বাড়ির কাছের একটি ব্রীজের উপর আমাদের কয়েকজন কিশোর ছেলে বসে হাওয়া খাচ্ছিল। এ সময় আব্দুর রউফ গং তাদের বেধরক মারপিট করে আহত করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কয়েক দফা হামলা সংঘষের ঘটনায় থানায় দু‘পক্ষের একাধিক মামলা হয়েছে। এরই জের ধরে এ দিন ভোরে আমার বাবা মা পাওনা টাকা আনতে যাওয়ার সময় তারা দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে বলে দাবী করেন।

তাদের এ অভিযোগ অস্বীকার করে আব্দুর রউফ বলেন, গ্রামে আধিপত্য বিস্তার ও তাদের কয়েকজন ছেলে আমার বাড়ির সামনের ব্রীজে বসে বখাটেপনা ও মেয়েদের উত্যাক্ত করার প্রতিবাদ করায় আমাদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে। এতে বাধা দিলে তারা আমাদের লোকজনকে মারপিট করে গুরুতর আহত করে। এ ঘটনায় আমরা একটি মামলা দায়ের করি। এ মামলায় হেরে যাওয়ার আশংকায় তারা নিজেরাই নাটক সাজিয়ে কৃষক নাজিম উদ্দিনকে অন্ডকোষে আঘাত করে হত্যার পর আমাদেরকে ফাঁসানোর জন্য মিথ্যা মামলা দায়েরের চেষ্টা করছে। সঠিক ও নিরপেক্ষ তদন্ত হলে আসল সত্য বেরিয়ে আসবে।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি আতাউর রহমান জানান,নিহতর শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। তাই এটি ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এটা হত্যা কিনা জানা যাবে। তিনি আরো বলেন এ ঘটনায় শাহজাদপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মতায়েন করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

লিখন/বাংলাটুডে

Comments are closed.