rockland bd

সাগর-রুনি হত্যায় দুই অপরিচিত পুরুষ জড়িত ছিল: র‍্যাব

0


ঢাকা, বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর: বাংলাদেশের সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন নাহার রুনি হত্যায় দুই অপরিচিত পুরুষ জড়িত ছিল বলে জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব)। সাগর ও রুনির পোশাকে তাদের ডিএনএ পাওয়া গেছে। তবে ডিএনএ প্রতিবেদন এখনো পাওয়া যায়নি।
বহুল আলোচিত চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার অগ্রগতি প্রতিবেদনে র‌্যাব এসব তথ্য জানিয়েছে। র‍্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, গতকাল সোমবার বিকেলে তদন্ত প্রতিবেদনটি অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।
এর আগে, গত ১৪ নভেম্বর এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে ৪ মার্চ বা তার আগে এ মামলার তদন্তের সর্বশেষ অবস্থা জানাতে এবং সাগর-রুনি হত্যা মামলায় আটক আসামি তানভিরের জড়িত থাকার বিষয়ে একটি প্রতিবেদন হলফনামাসহ দাখিলের নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। তারই পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল এ প্রতিবেদন দাখিল করেছে র‌্যাব।
এ মামলায় সন্দেহভাজন আসামি মো. তানভির রহমানের এক আবেদনের শুনানি নিয়ে আদালত রুল জারি করেন এবং গত ৬ নভেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে তলব করেন। পরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাবের অতিরিক্ত ডিআইজি খন্দকার শফিকুল আলম হাইকোর্টে হাজির হয়ে মামলার তদন্ত প্রতিবেদনের অগ্রগতি সম্পর্কে জানান।
উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারের ভাড়া বাসায় খুন হন মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সারোয়ার ও এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি। পরের দিন ভোরে তাদের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়।
ওই ঘটনায় রুনির ভাই বাদী হয়ে আদালতে একটি মামলা করেন। প্রথমে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ছিলেন শেরেবাংলা নগর থানার একজন উপপরিদর্শক (এসআই)। পরে চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার তদন্তের ভার দেওয়া হয় গোয়েন্দা পুলিশকে (ডিবি)। দুই মাসেরও বেশি সময় তদন্ত করে ডিবি রহস্য উদঘাটনে ব্যর্থ হয়। পরে হাইকোর্টের নির্দেশে ২০১২ সালের ১৮ এপ্রিল হত্যা মামলাটির তদন্তভার র‌্যাবের কাছে হস্তান্তর করা হয়। কিন্তু হত্যার আট বছর পেরিয়ে গেলেও প্রতিবেদন জমা পড়েনি আদালতে। খবর পারস টুডের।

আস / বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর

Comments are closed.