rockland bd

বাড়ছে ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ, তিন মাসে ১১ জনের মৃত্যু

0

ডেস্ক প্রতিবেদন, ঢাকা


রাজধানীতে জুরে বাড়ছে ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেব অনুযায়ী শুধু জুলাই এবং আগস্টেই আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই হাজারের বেশি। গত তিন মাসে এই জ্বরে মারা গেছেন ১১ জন। ডেঙ্গু রোধে বাড়ি ঘর পরিচ্ছন্ন রাখার পাশাপাশি, দিনের বেলায়ও মশা যাতে কামড়াতে না পারে সেজন্য সতর্ক থাকার পরামর্শ চিকিৎসকদের।
ঢাকার লালবাগের বাসিন্দা সোহেল জ্বর, ব্যাথা ও র‌্যাশ নিয়ে ভর্তি হয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। চিকিৎসক জানালেন, রক্তে প্লাটিলেট কমেছে, পাশাপাশি ভুগছেন শক সিনড্রোমে।
সোহেলের মতো মশার কামড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫৪ জন ডেঙ্গু রোগী। বেশিরভাগই ডেঙ্গু জ্বরে দ্বিতীয় বা তৃতীয় দফায় আক্রান্ত।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, যাদের একবার ডেঙ্গু হয়ে যাচ্ছে তাদের অবশ্যই বাড়তি যত্ন নিতে হবে।
চলতি মাসের প্রথম তিন দিনে রাজধানীতে ডেঙ্গু জ্বরে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৬৪ জন। ২০১৭ সালে আক্রান্ত হয়েছিলেন দুই হাজার ৭৬৯ জন। এ বছর এরই মধ্যে ছাড়িয়ে গেছে সেই সংখ্যা। আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৯৬৫ জন, যাদের দুজন ছাড়া বাকি সবাই রাজধানীর বাসিন্দা।

রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার জরিপে জানা গেছে, রাজধানীর ৯৩টির মধ্যে ৬৮ ওয়ার্ডেই এডিস মশার ঝুঁকিতে আছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. এম এম আক্তারুজ্জামান বলেন, প্লাস্টিক ড্রাম, বাকেট এ পানি জমা থাকার ফলে এবং স্যাতস্যাতে জায়গায় ডেঙ্গুর প্রকোপ বেশি দেখা যাচ্ছে।
জ্বর হলে প্যারাসিটামল ছাড়া কোন ব্যাথানাশক ওষুধ না খেতে সর্তক করছেন চিকিৎসকরা।
ঢাকা মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা. যায়েদ হোসেন বলেন, ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ব্যাথানাশক ওষুধ কোন অবস্থাতেই খাওয়া যাবে না। এমনকি হার্টের রোগী যারা এস্পিরিন জাতীয় ওষুধ খান তারা তা খেতে পারবেন না।
এডিস মশার বংশ বিস্তার রোধে ঘরের চারপাশের পরিবেশ পরিস্কার রাখার পাশাপাশি সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বাংলাটুডে২৪/আর এইচ

Comments are closed.