rockland bd

জন ম্যাকেইনের শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন

0

বিদেশ, ভয়েস অব আমেরিকা


সম্প্রতি প্রয়াত যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘকালীন সিনেটর জন ম্যাকেইনের শেষ কৃত্যানুষ্ঠানে ওয়াশিংটন কাথেড্রলে যোগ দিয়ে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা দেশটির রাজনীতির বর্তমান অবস্থাকে অত্যন্ত সংকীর্ণ বলে এর সমালোচনা করেন।


পাঁচ দিন ব্যাপী শোকের শনিবার ছিল চতুর্থ দিন। শেষ কৃত্যানুষ্ঠানে শত শত লোক সমবেত হয়েছেন যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তার পরিবারের সদস্যরা , বন্ধুবান্ধব এবং কংগ্রেসে তাঁর সাবেক সহকর্মীরা।
ওবামা ম্যাকেইনের শেষকৃত্যানুষ্ঠানে বলেন যে, আরো ভাল করার আমাদের যে মহান ঐতিহ্য আমাদের প্রতিষ্ঠাতারা দিয়ে গেছেন তার উপর ভিত্তি করে আরো ভাল করার প্রত্যয় নেয়ার মূহুর্ত আজ।
ওবামা আরো বলেন যে, আমাদের জনজীবন , আমাদের প্রকাশ্য আলোচনা এতটাই সংকীর্ণ এবং কিঞ্চিতকর হয়ে পড়ছে যে সেখানে কেবল চলছে বাগাড়ম্বর অপমান এবং বিতর্ক , কৃত্রিম ক্ষোভ।


ওবামা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নাম উচ্চারণ না করেই বলেন যে এই রাজনীতি সাহসী আর কঠোর হবার ভাণ করে, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এর জন্ম ভীতির মধ্যে। জন ম্যাকেইন আমাদেরকে এর চেয়ে অনেক বড় হবার আহ্বান জানিয়েছিলেন ।
সহযোগী রিপাবলিকানের প্রতি মরণোত্তর প্রশংসা সূচক ভাষেণ প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিইউ বুশ বলেন, ম্যাকেইন ছিলেন সম্মানিত ব্যক্তি এবং সব সময়ে তিনি এ কথা অনুভব করেছেন যে তার বিরোধীরাও দেশপ্রেমিক ।
বুশ ও ওয়াশিংটনের বর্তমান রাজনীতির ধারা প্রত্যাখ্যান করে বলেন , এই ধারা ম্যাকেইনের ব্যক্তিগত বিশ্বাস থেকে ভিন্ন।

ম্যাকেইন মস্তিস্কের ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হবার পর বুশ এবং ওবামাকে তাঁর শেষকৃত্যানুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। ২০০০ সালে প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়োনে তিনি বুশের কাছে হেরে যান এবং প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ২০০৮ সালে ওবামার কাছে পরাস্ত হন।
শুক্রবার তাঁর প্রতি সম্মান জানানোর পর শনিবার সকাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবন , ক্যাপিটল হিলের রোটান্ডায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর মরদেহ রাখা হয়েছিল । গতকালের ঐ অনুষ্ঠানে যোগ দেন ম্যাকেইনের স্ত্রী , তাঁর সাতজন সন্তান এবং ১০৬ বছর বয়সী তাঁর মা। তা ছাড়া রোটান্ডায় তাঁকে সম্মান জানান কংগ্রেসের সদস্যরা।

বাংলাটুডে২৪/আর এইচ

Comments are closed.