rockland bd

রায়গঞ্জে ইয়াবা দিয়ে যুবককে ফাঁসাতে গিয়ে ধরা খেল ডিবি

0

বায়ে আটক ডিবি সোর্স সাদ্দাম ও ডানে দুই ডিবির সদস্য।


আতিক মাহমুদ আকাশ, রায়গঞ্জ প্রতিনিধি (বাংলাটুডে) : সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে যুবককে ইয়াবা মামলায় ফাঁসাতে গিয়ে সিরাজগঞ্জ ডিবি পুলিশের দল অবরুদ্ধ, অতঃপর পুলিশের হস্তক্ষেপে উদ্ধার। সোর্স আটকের ঘটনা ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে রায়গঞ্জ পৌর এলাকার ধানগড়া দিপ্তী প্লাজার রাজধানী গিফট কর্ণারে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও দিপ্তী প্লাজার স্বত্বাধিকারী বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক(মন্টু) জানান, ঐ দিন বেলা পৌনে ৩টা থেকে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি রাজধানী গিফট কর্ণারের ম্যানেজার সুলতান কে ০১৭১৫-১০৬৮৯৭ নম্বর থেকে একাধিকবার ফোন দিয়ে এলইডি মনিটর ক্রয়ের কথা বলে দোকানে থাকতে বলে। রাত ৮টা ২০মিনিটে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি দিপ্তী প্লাজায় ঢুকে রাজধানী গিফট কর্ণারে ৪-৫ জন যুবককে বসা দেখতে পেয়ে সুলতানকে নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার ফোনে আবারও কল করে। তখন ডিবি পুলিশের দল ধানগড়া মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের গেটে গাড়ী দাঁড় করিয়ে রেখে মার্কেটে প্রবেশ করে।

এ সময় ডিবি পুলিশ সোর্সকে তল্লাশি করে তার পকেটে থাকা ১৪ পিছ ইয়াবা পায়। ডিবি পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে, সে বলে আধা ঘন্টা আগে আমি সুলতানের নিকট থেকে ১৪ পিছ ইয়াবা ক্রয় করেছি। তখন ডিবি পুলিশ সোর্স সাদ্দাম ও ম্যানেজার সুলতানকে আটক করে হ্যান্ডকাপ লাগায়। এ সময় উপস্থিত জনতা বিষয়টি সন্দেহজনক ভেবে মার্কেটের প্রধান গেট আটকে দিয়ে সিসি ফুটেজ দেখার জন্য ডিবিকে অনুরোধ করে। সিসি ক্যামেরার কথা শুনে উপস্থিত ডিবি হচকিত হয়ে পালানোর চেষ্টা করে।

উত্তেজিত জনতা তাদেরকে অবরুদ্ধ রেখে প্লাজার মালিক আব্দুল খালেক মন্টুকে খবর দেয়। আব্দুল খালেক মন্টু বিষয়টি রায়গঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জকে অবহিত করলে অফিসার ইনচার্জ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ডিবি পুলিশের দল সহ সোর্সকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে ডিবি পুলিশের এস. আই মনিরুজ্জামান(রকি) বাদী হয়ে সোর্স সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কল্যাণী পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুল আজিজের পুত্র সাদ্দাম হোসেন(২৯) কে আসামী করে রায়গঞ্জ থানায় ২০১৮ সালের মাদক নিয়ন্ত্রণ আইন ৩৬(১) এর টেবিলের ১০(ক) ধারায় মামলা দায়ের করে। রায়গঞ্জ থানার ওসি পঞ্চনন্দ সরকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে।

আমিন/২২সেপ্টেম্বর/২০১৯

Comments are closed.