rockland bd

রূপনগর ঝিলপাড় বস্তি পুড়ে ছাই

0


ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা, ১৭ আগস্ট (বাংলাটুডে) : মিরপুরের রূপনগর থানার পেছনের ঝিলপাড় বস্তিতে লাগা আগুন গতকাল নিয়ন্ত্রণে আসে। এখন শুরু হয়েছে ডাম্পিংয়ের কাজ। গতকাল রাত সাড়ে ১০টায় আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসার দাবি করেছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (অপারেশন্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমান। তবে আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও বস্তির প্রায় সব ঘর পুড়ে গেছে। এখানে হাজারেরও বেশি ঘর ছিল বলে দাবি করেছেন বস্তিবাসীরা।

মিরপুরের রূপনগরের ঝিলপাড় বস্তিতে লাগা ভয়াবহ আগুন।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (অপারেশন্স) বলেন, রাত সাড়ে দশটার দিকে আমরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছি। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ২৪টি ইউনিট কাজ করছে। এখন পর্যন্ত তিন জন আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। তবে নিহত বা নিখোঁজ থাকার কোনও সংবাদ আমরা পাইনি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব তরুণ কান্তি শিকদার বলেন, আগুন নেভাতে এখানে সিটি করপোরেশন এবং ওয়াসার পক্ষ থেকে পানি দেওয়া হচ্ছে। ঘটনাস্থলে অনেকেই সহযোগিতা করেছে। তবে উৎসুক জনতা চারপাশে দাঁড়িয়ে থাকায় আগুন নেভানোর কাজে ব্যাঘাতও ঘটিয়েছে। আমরা কাজের ব্যাঘাত ঘটুক তা চাই না। এখনও কেউ মারা যাওয়ার খবর আমরা পাইনি।

আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, এ বিষয়টি তদন্ত না করে বলতে পারবো না। আমরা আগে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি। আগুন নিয়ন্ত্রণে এলে এটি বলা যাবে।

ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক দীলিপ কুমার সাহা জানান, ঝিলের ওপরে ঘরবাড়িগুলো করা ছিল। কাঠ, বাঁশ এবং চাটাই ও টিন দিয়ে ঘরবাড়িগুলো তৈরি করা। আগুন লাগার পরপরই তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। ঝিলে পানি থাকায় আমাদের সেখানে ঢুকতে বেগ পেতে হয়েছে। আশেপাশের গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি থেকেও পানি পেয়েছি। এখন পর্যন্ত কারও নিখোঁজ থাকার কথা জানায়নি কোনও পরিবার। বস্তির গলি সরু থাকায় গাড়ি ভেতরে ঢোকানো যায়নি। মেইন সড়কে গাড়ি রেখে পাইপ টেনে পানি নেওয়া হয়েছে, এজন্য বেগ পেতে হয়েছে।
ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক ( অপারেশনস) দেবাশীষ বর্ধন জানিয়েছেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর ডাম্পিংয়ের (ক্ষয়-ক্ষতি নিরূপণ ও হতাহতের অনুসন্ধান) কাজ শুরু হয়েছে। রাতভর এ কাজ চলবে।

এদিকে, বস্তিবাসীরা অভিযোগ করেছেন, আগুনে তাদের হাজারেরও বেশি ঘর পুড়ে গেছে। এসব ঘরে তাদের সহায় সম্বল যা ছিল সব পুড়ে গেছে। আগুনে তারা সর্বস্ব হারিয়েছেন।
আস/বাংলাটুডে টুয়েন্টি ফোর

Comments are closed.