rockland bd

মেহেন্দিগঞ্জে মেঘনা নদীর অব্যাহত ভাঙনে মানুষ দিশেহারা

0


এইচ এম আনিছুর রহমান,মেহেন্দিগঞ্জ, আগস্ট ৫, বাংলাটুডে টুয়েন্টিফোর:
বর্ষা মৌসুম শুরু হওয়ার সাথে সাথেই মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া মেঘনা নদীর অব্যাহত ভাঙনে এ এলাকার মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। উপজেলার উলানিয়া, চানপুর, চরএকরিয়া, মেহেন্দিগঞ্জ সদর ইউনিয়নের নদী তীরবর্তী ৫টি গ্রামে ব্যাপক ভাঙন শুরু হয়েছে। গত এক সপ্তাহের ভাঙনে মেঘনা তীরবর্তী আলীগঞ্জ বাজার এলাকা, উত্তরচর বটতলা এলাকা, চানপুর ঝোরখালী এলাকা, সদর ইউনিয়নের রুকুন্দী এলাকার শত একর ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। মানবেতর জীবনযাপন করছে নদী তীরবর্তী ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ গুলো। ভাঙনের তীব্রতায় পাল্টে যাচ্ছে উপজেলার বেশ কিছু গ্রামের মানচিত্র।
সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, উপরোল্লেখিত গ্রামের শতাধিক ঘরবাড়ি, তিনটি বাজার, কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও মসজিদ এবং শত শত একর ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলিন হওয়া পথে।
স্
থানীয়রা জানান, উপজেলার সিমান্তে ধূলখোলার মেঘনার পারে সবচেয়ে বড় আলীগঞ্জ বাজার এখন নদীর ভাঙনে বিলীন হওয়ার দ্বারপ্রান্তে। এ বাজারের ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অনেকেই অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছেন। হুমকির মুখে রয়েছে হিজলা পি. এন. মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আশিঘর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলীগঞ্জ সিনিয়ার মাদরাসা, আলীগঞ্জ বাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ শত শত ঘরবাড়ি। পালপাড়া গ্রামের কৃষক খোরশেদ তালুকদার বাংলাটুডেকে বলেন, আমাদের বসত বাড়ি ও অনেক ধানি জমি ছিল, ধানি জমি আর বসত বাড়ি মেঘনা নদীর ভাঙনে শ্যাষ হইয়া গেছে। উত্তর চর এলাকার সঞ্জয় সুত্রধর জানান, আমার প্রায় দুইশত পানের বরজ নদীর গর্বে বিলিন হয়ে গেছে।
স্থানীয়রা জানান, মেঘনা নদীর ভাঙনে এ উপজেলার শত শত পরিবার নিঃস্ব হয়ে গেছে। ভাঙন প্রতিরোধে মেঘনা নদীতে ব্লক বসিয়ে বেড়িবাঁধ নির্মাণ করে উপজেলাবাসিকে নদী ভাঙ্গনের হাত থেকে রক্ষাকল্পে  সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়েছেন উপজেলাবাসী ।

এবিএস

Comments are closed.