rockland bd

ফরিদপুরে কেবল ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

0


কে এম রুবেল, ফরিদপুর প্রতিনিধি (বাংলাটুডে) :
ফরিদপুরে এক কেবল ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে শহরের আলীপুর মহল্লার খাঁপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।
দেশীয় ধারাল অস্ত্রের আঘাতে আহত কেবল ব্যবসায়ী মো. কাওসার ফকিরকে (৩২) ফরিদপুর মেডেকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। কাওসার শহরের ভাটিলক্ষ্মীপুর মহল্লার বাসিন্দা আব্দুল আওয়াল ফকিরের ছেলে। তিনি বিবাহিত এবং এক মেয়ের বাবা।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শহরে আলীপুর এলাকার রেড ক্রিসেন্ট মার্কেট ও ঝিলটুলী এলাকার সুফীক্লাব পরিচারিত দুটি ক্যাবল ব্যাবসায়ী প্রতিষ্ঠান রয়েছে। কাওসার সুফীক্লাব পরিচারিত ক্যবল নেটওয়ার্কের সাথে জড়িত। বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি আলীপুর খাঁপাড়া এলাকায় নতুন গ্রাহকদের ক্যবল সংযোগ দিতে গেলে দেশীয় ধারাল অস্ত্রের আঘাতে আহত হন। তার ডান হাতে, পিঠে ও উরুতে ধারাল অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু কর্তব্যরত চিকিৎমক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থনান্তর করেন।
মো. কাওসার ফকির অভিযোগ করে বলেন, রেড ক্রিসেন্ট মার্কেট ক্যবল নেটওয়ার্কের সাখে জড়িত আলীপুর মহল্লার মো. শাহীন খান ( ৪০) ও তার কয়েকজন সহযোগী তার উপর হামলা চালিয়ে তাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে।
এ ব্যাপারে শাহীন খানের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সেটি বন্ধ থাকায় তার সাথে এ অভিযোগ বিষয়ে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে গিয়ে কথা বলেছে আহত কাওসারের সাথে। তিনি বলে এ ঘটনায় আহত কাওসারের স্ত্রী সুবর্ণা নাসরিন বাদী হয়ে শুক্রবার শাহীন খানসহ মোট চারজনকে আসামি করে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তিনি বলেন, শাহীন খান পলাতক থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

আমিন/১৪জুন/২০১৯

Comments are closed.