rockland bd

নীলফামারীতে তীব্র তাপদাহে ডায়রিয়ার প্রকোপ

0


রুখসানা জামান শানু, নীলফামারী সৈয়দপুর (বাংলাটুডে) :
প্রখর রোদ আর তীব্র তাপদাহে জনজীবনে নাভিশ্বাস অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। দিনের প্রথম প্রহরে বাইরে বের হওয়া গেলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে তাপের তীব্রতা বৃদ্ধি পেয়ে সহ্য সীমা অতিক্রম করায় রাস্তাঘাটে মানুষের চলা-ফেরা একেবারে নেই বললেই চলে। একান্ত বাধ্য হয়ে যাঁরা বের হচ্ছেন তারাও ঘেমে একাকার হয়ে পিপাসায় কাতর হয়ে পড়ছেন।
গাছের নিচে ছায়াযুক্ত স্থানে একটু স্বস্তি পেতে দাঁড়িয়ে পড়ছেন পথে চলাচলকারীরা। এতে করে নারী এবং বেশির ভাগ শিশুরা আক্রান্ত হচ্ছে ডায়রিয়া রোগে।
গত কয়েক দিনে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতালে রোগীর সংখ্যাও বেড়ে গেছে। অনেকেই আবার হাসপাতালে বেড না পেয়ে ক্ষুদ্ধ হয়ে বাড়ী ফিরছেন। অতিরিক্ত রোগীদের সেবা দিতে কর্তৃপক্ষও হিমশিম অবস্থায় পড়েছেন।
সৈয়দপুর বিমানবন্দর আবহাওয়া অফিসের পরিচালক লোকমান হাকিম জানান, সৈয়দপুরে তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রী থেকে ৩৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস ওঠাানামা করছে। সারাদিন প্রখর রোদ বিরাজ করায় তাপের তীব্রতায় নারী-শিশুসহ বয়স্ক লোকজন স্বর্দি-কাশি, জ্বরসহ ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন। প্রচন্ড রোদে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে অতিরিক্ত রৈাগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যাই বেশি। এ ব্যাপারে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আরিফুল হক সোহেল জানান, হঠাৎ করে বিরুপ আবহাওয়া ও পানি জনিত নানা রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। একারণে হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রায় প্রতিদিনই ডায়রিয়া রোগি হাসপাতালে আসছেন। এর মধ্যে নারী-শিশু ও বয়স্ক রোগীই বেশি।
এ চিকিৎসক আরো জানান, এ পরিস্থিতিতে ডায়রিয়া বা অন্যান্য পেটের পীড়া থেকে রেহাই পেতে বিশুদ্ধ পানি পানসহ খাওয়ার ক্ষেত্রে চর্বিদার, বাসি, গুরৃপাক খাবার গ্রহন পরিহার করতে হবে। সে সাথে ডাবের পানি, লেবুর রসের সরবত বা আখের রস পানসহ স্যালাইন পান করা উচিত। এতে শরীরের পানি স্বল্পতা রোধ পাবে এবং আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকবেনা।

আমিন/১১জুন/২০১৯

Comments are closed.