rockland bd

রামগড়ে বিড়ির উপর ট্যাক্স কমানোর দাবিতে মানববন্ধন

0


সোহাগ মজুমদার, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি (বাংলাটুডে) :
খেটে খাওয়া মেহনতি মানুষের ভোগ্যদ্রব্য বিড়ির উপর ট্যাক্স কমানোর দাবি ও ভোক্তা অধিকার রক্ষার লক্ষ্যে বৃহত্তর বিড়ি ভোক্তা পক্ষ রামগড় অঞ্চলের উদ্যোগে সোমবার (১৩ই মে) রামগড় পুলিশবক্স সংলগ্ন এলাকায় ঘন্টাব্যাপি মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্থানীয় বিড়ি শ্রমিক, বিড়ি ভোক্তারা অংশ গ্রহণ করে। এ সময় তারা মেহনতি মানুষের সাথী বিড়ির উপর অতিরিক্ত ট্যাক্স আরোপ না করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।
পাইসে মারমা ও ইব্রাহীম হোসেনের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন রামগড় ভোক্তা শ্রমিক সভাপতি উদয় ত্রিপুরা। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, “বিড়ি মেহনতি মানুষের অনুসঙ্গ, কাজেই বিড়ির উপর করারোপ করা হলে তা খেটে খাওয়া মানুষের কষ্ট বাড়ায়।” তাই ২০১৯-২০ অর্থ বছরে বিড়ির উপর অতিরিক্ত কর আরোপ না করে বরং কর কমানোর জন্য তিনি সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবী জানান।
মানববন্ধনে অংশ নেওয়া উহ্লাপ্রু মারমা, কালাম, ইয়াকুব, নাছির, মোস্তফা, সাইফুল, আলমগীরসহ অন্যান্য শ্রমিকরা এ সময় তাদের ভাষায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্য তুলে ধরেন। বক্তারা আরো বলেন, প্রতিবছর বাজেট আসলে আমাদের মত বিড়ি ধূমপায়ীদের আন্দোলন করতে হয়। আর সে আন্দোলন সিগারেটের বিরুদ্ধে। কারন আমাদের দেশে বাজেট আসলে কিছু আমলা প্রতি বছর ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোর কাছে বিক্রি হয়ে যায় আর সিগারেটের কর কমিয়ে বিড়ির উপর অতিরিক্ত কর বাড়িয়ে বিড়ি শিল্পকে বন্ধ করে দিতে চান। তাই এই মানববন্ধনে আপনাদের মাধ্যমে বিএটিএর দালালদের হুশিয়ার করে দিতে চাই আপনাদের এই স্বপ্ন কোনদিনও পূরন হবে না। কারন এই বিড়ি শিল্পে দেশের খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মেহনতি মানুষ জড়িত যাদের পাশে বঙ্গবন্ধু ছিল এবং তার সুযোগ্যকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আছেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ অর্থ বছরে বাজেট অধিবেশনে বলেছিলেন বিড়ির উপর কোন ট্যাক্স বাড়ানো হবে না বিড়িকে কুটির শিল্প ঘোষণা করতে হবে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার বাস্তবায়ন চাই। সাথে সাথে বহুজাতিক কোম্পানীর বিএটির বেনসনসহ সকল সিগারেটের কর বৃদ্ধির জোর দাবি জানাচ্ছি।

আমিন/১৩মে/২০১৯

Comments are closed.