rockland bd

চেন্নাইকে ১ রানের হতাশায় ডুবিয়ে আইপিএল শিরোপা জিতল মুম্বাই

0


খেলা ডেস্ক, ঢাকা, ১৩ মে (বাংলাটুডে) :
বারোতম আসরে দু’দলের সামনেই সুযোগ ছিল চতুর্থবারের মতো শিরোপা ঘরে তোলার। ফাইনালের ভাগ্যও দু’দলের সমান ছিল। কিন্তু লাসিথ মালিঙ্গা কেড়ে নিলেন ধোনির মুখের হাসি। হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে নীল উৎসব ছড়িয়ে চতুর্থবারের মতো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ঘরে তুললো মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।
জমকালো ফাইনালে কি ছিল না? নখ কামড়ানো চাপ, টানটান উত্তেজনা আর বারবার এদিক-ওদিক হেলে পড়া ম্যাচে মালিঙ্গা যাদুতে মাত্র ১ রানে চেন্নাইকে হারিয়ে শিরোপা উৎসবে মেতে ওঠেন পান্ডিয়া, রোহিত ও মালিঙ্গারা। এর আগে ২০১৩, ২০১৫ ও ২০১৭ মৌসুমের শিরোপা ঘরে তুলেছিল মুম্বাই।
১৫০ রানের মামুলি লক্ষ্যে খেলতে নেমে একটু খেই হারিয়ে ফেলেছিল ধোনির দল। কিন্তু ওয়াটসন ও ডু প্লেসিসের ব্যাটে ভর করে শিরোপার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিল কিংসরা। যেখানে শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল মাত্র ৯ রানের। ক্রিজের ছিলেন ৮০ রানে ব্যাটিং করা ওয়াটসন। কিন্তু বোলার যখন মালিঙ্গা তখন পথ পাড়ি দেয়া যে সহজ নয় সেটা হাঁড়ে হাঁড়েই বুঝলো চেন্নাই।
জয় থেকে ৪ রান দূরে থাকতে ওয়াটসনকে ফিরিয়ে দিয়ে শিরোপা স্বপ্ন নিজেদের দিকে নেন মালিঙ্গা। পঞ্চম বলে ২ রান নিলে শেষ বলে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২ রানের। কিন্তু মৌসুমের শেষ বলে কোন রান নিতে না পেরে উল্টো আউট হয়ে ১ রানে হেরে শিরোপা হাতছাড়া করলো চেন্নাই। অন্যদিকে শার্দুল ঠাকুরকে আউট কওে হায়দরাবাদের মাঠে নীলাভ উৎসব ছড়িয়ে দেন মালিঙ্গা।
এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামে মুম্বাই। কিন্তু শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে সেভাবে জ্বলে ওঠেনি ইন্ডিয়ান্সদেও ব্যাট। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রান তুলেছিল তারা। কিয়েরন পোলার্ড ২৫ বলে ৪১ এবং কুইন্টন ডি কক ১৭ বলে ২৯ রান ছাড়া আর কেউই টি-টুয়েন্টি মেজাজে খেলা দেখাতে পারেননি। ইশান কিষান ২৩ এবং শেষ দিকে হার্দিক পান্ডিয়া ১০ বলে ১৬ রান করেন। সব মিলিয়ে মুম্বাইয়ের সংগ্রহ ১৪৯ এর বেশি হয়নি। চেন্নাইয়ের হয়ে দীপক চাহার ৩টি এবং শার্দুল ঠাকুর ও ইমরান তাহির ২টি করে উইকেট নেন।
এবারের আসরে সর্বোচ্চ রানের মালিক হয়েছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলা অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। ১৫ ম্যাচে ৬৯২ রান করেছেন তিনি। এছাড়া পাঞ্জাবের কে এল রাহুল ৫৯৩ এবং দিল্লির শিখর ধাওয়ান ৫২১ রান করেন।
এবারের আসরে বল হাতে ছড়ি ঘুরিয়েছেন দ.আফ্রিকার তরুণ তুর্কি কাগিসো রাবাদা। দিল্লির হয়ে ২৫টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। এছাড়া চেন্নাইয়ের হয়ে খেলা লেগ স্পিনার ইমরান তাহির শিকার করেছেন ২৪টি উইকেট।

আমিন/১৩মে/২০১৯

Comments are closed.