rockland bd

জামালপুর বোরো ধানের ফলন ভালো হলেও ন্যায্য দাম নিয়ে শঙ্কা কৃষকদের

0

বোরো ধানের ন্যায্য দাম নিয়ে শঙ্কা কৃষকদের

মিঠু আহমেদ, জামালপুর প্রতিনিধি (বাংলাটুডে) : প্রচন্ড গরমকে উপেক্ষা করে জামালপুরে বোরো ধান কাটতে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকেরা। তবে কৃষকদের দাবী সার বীজ সহজে মিললেও ধানের ন্যায্য মূল্য নিয়ে শঙ্কায় রয়েছে তারা। তবে কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, এবার ফলন খুবই ভাল হয়েছে তবে চাষিরা ফসলের ন্যায্য দাম পাচ্ছে না।
জামালপুর কৃষি বিভাগের তথ্যমতে জানা যায়, চলতি মৌসুমে জামালপুর জেলায় ৭ টি উপজেলাতে ১ লাখ ২৯ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ করা হয়েছে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২-থেকে ৩ হাজার হেক্টর জমি কমচাষ হয়েছে। এরপরও ব্যাপক ফলন পেয়েছে চাষিরা। গত বারের চেয়ে এবার হাইব্রিট বোর ধানের চাষ একটু বেশিই করা হয়েছে।
কৃষক ময়েন উদ্দিন, হাতেম আলী ও গেদা শেখ জানান, ১ মন ধান উৎপাদন করতে যেখানে ৫ থেকে ৬শ টাকা খরচ পরে যায় সেখানে দেড়মন ধান বিক্রি করে একজন শ্রমিক নিতে হয়। এছাড়া বর্তমানে সার বীজ সহজ হলেও শ্রমীক মজুরী বেশী হওয়ায় আবার অনেকে ধার দেনা করে আবাদ করলেও ধানের ন্যায্য দাম না পাবার শঙ্কায় রয়েছে তারা। বর্তমানে ধানের দাম ৪শ থেকে ৪৫০ টাকা মন রয়েছে। এই ক্ষতি থেকে রক্ষা পেতে সরকারের দৃষ্টি কামনা করেছেন কৃষকরা। তবে এভাবে চলতে থাকলে এক সময় চাষিরা মুখ ফিরিয়ে নিবে ধান চাষ থেকে।
উপ-পরিচালক কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর জামালপুর কৃষিবিদ আমিনুল ইসলাম বলেন, নেক্সব্লাস্ট ও পোকা মাকড়ের আক্রমন না থাকায় ও বৃষ্টির পানি পাওয়ায় এবার কৃষকরা বোরধানের ব্যাপক ফলন পেয়েছে। তবে দাম নিয়ে রয়েছে সঙ্কায়। জামালপুর জেলায় ৭ টি উপজেলাতে ১ লাখ ২৯ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ করা হয়েছে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২-থেকে ৩ হাজার হেক্টর জমি কমচাষ হয়েছে। এরপরও ব্যাপক ফলন পেয়েছে চাষিরা।

আমিন/১০মে/২০১৯

Comments are closed.