rockland bd

নির্বাচনে জয়ের পর ইমরানের স্ত্রী’রা কে কি বললেন?

0

নিজস্ব প্রতিবেদন


ইমরান খানের বর্তমান স্ত্রী আধ্যাত্মিক গুরু বুশরা মানেকা দেশবাসীকে অভিনন্দন দিয়েছেন। তৃতীয় স্ত্রী বুশরা ইমরানের মতো নেতাকে ভোটের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বেছে নেয়ায় তাদের প্রশংসা করেছেন। প্রশংসা করেছেন প্রথম স্ত্রী জেমাইমা গোল্ডস্মিথও। তবে এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম ছিলেন দ্বিতীয় স্ত্রী রেহাম খান। ইমরানের সততা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। নির্বাচনে জয়ের পর কে কি বললেন দেখে নেয়া যাক।

জাতির উদ্দেশে ইমরানের তৃতীয় স্ত্রী বুশরার বার্তা

বর্তমান স্ত্রী আধ্যাত্মিক গুরু বুশরা মানেকা ও ইমরান খান।


পাকিস্তানের আগামী সরকার গঠন করতে যাচ্ছে সাবেক ক্রিকেটার ও রাজনীতিবিদ ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। আর ইমরান খান হতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। নিজ দলের সমর্থক ছাড়াও অনেকেই ইমরান খানকে আগাম অভিনন্দন জানাতে শুরু করেছেন।
পিটিআইর এই জয়ে পাকিস্তানিদের উদ্দেশে এবার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইমরান খানের স্ত্রী পিংকি পীর খ্যাত বুশরা ইমরান।
বুশরা ইমরান জাতির উদ্দেশে এক বার্তায় বলেন, ‘আল্লাহ এই জাতিকে এমন এক নেতা দিয়েছেন, যিনি এদের দেখাশোনা করবেন।’
বিশেষ করে নিপীড়িত, বঞ্চিত নারী, বিধবা ও এতিমদের উদ্দেশে বুশরা বলেন, ‘নতুন নির্বাচিত নেতা তাদের রক্ষা করবেন।’
এর আগে ইমরান খানের সাবেক স্ত্রী জেমাইমা গোল্ডস্মিথও পিটিআইর সম্ভাব্য জয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে ইমরান খান, তার দল ও পাকিস্তানের নাগরিকদের শুভেচ্ছা জানান।
এছাড়া আরেক স্ত্রী রেহাম খানও ইমরান খানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। যদিও তিনি জানিয়েছেন যে, তিনি ইমরানকে নয় বরং ভোট দিয়েছেন বেনজির ভুট্টোর ছেলে বিলাওয়াল ভুট্টোর নেতৃত্বাধীন পিপিপিকে।

আপনারা পছন্দের বিশ্বস্ত নেতা পাবেন : জেমাইমা গোল্ডস্মিথ

জেমাইমা গোল্ডস্মিথ ও ইমরান খান।


এক দশকের মধ্যে ইমরান খানের সাথে দাম্পত্যে ছেদ টানলেও রাজনীতিতে নিজের দুই ছেলের বাবার সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইমরানের প্রথম স্ত্রী জেমাইমা গোল্ডস্মিথ। ব্রিটেনের অভিজাত গোল্ডস্মিথ পরিবারের কন্যা ব্রিটিশ সাংবাদিক ও সামাজিক ও রাজনৈতিক বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আন্দোলনকারী জেমাইমা গোল্ডস্মিথ।
নির্বাচনের ফলাফল জেনে ইমরান খানের দুই ছেলের মা জেমাইমা গোল্ডস্মিথ টুইট করেন, ২২ বছর ধরে অনেক অপমান, বাধা ও আত্মত্যাগের পরে আমার সন্তানদের পিতা পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন। আত্মবিশ্বাস, হার না-মানা এবং হাল না-ছাড়ার পাঠ তার এই সফর। হার না মানলে, বিশ্বাসে অটল থাকলে, জেদ থাকলে কী করা যায় তার অবিশ্বাস্য উদাহরণ এটা। অভিনন্দন ইমরান খান।
ইমরান খানকে তার চ্যালেঞ্জের কথাও মনে করিয়ে দিলেন সাবেক স্ত্রী জেমাইমা। তিনি বলেছেন, রাজনীতিতে কেন নেমেছিলেন, সেই কথাটি স্মরণ করা এখন ইমরানের সামনে চ্যালেঞ্জ। নির্বাচনের দিনও তিনি টুইট করে বলেছিলেন, আশা করি, আপনাদের ভোট সার্থক হবে। যে নেতার উপরে আপনারা আস্থা রেখেছেন, তাঁকেই পাবেন। অপর একটি টুইটে জেমাইমা বলেছিলেন, বিয়ের পর ইমরান ১৯৯৭ সালে প্রথম নির্বাচনে লড়েছিল। তখন অনেকটাই অনভিজ্ঞ ছিল ইমরান।
১৯৯৫ সালে যুক্তরাজ্যের বনেদি ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে জেমাইমাকে বিয়ে করেন। ইমরানকে বিয়ের জন্য ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন জেমেইমা। তখন ইমরানের বয়সের অর্ধেক ছিল জেমাইমার বয়স। প্রথম বিয়ের সময় ইমরানের বয়স ছিল ৪৩, আর জেমাইমার ২১।

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য সব সততা বিসর্জন দিয়েছে ইমরান খান : রেহাম খান

দ্বিতীয় স্ত্রী রেহাম খান ও ইমরান খান।


পিটিআই নেতা ইমরান খানের সাবেক স্ত্রী সাংবাদিক রেহাম খান বলেছেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য পিটিআই নেতা ইমরান খানকে চড়ামূল্য দিতে হয়েছে। এই আসনে বসার জন্য তাকে সব সততা বিসর্জন দিতে হয়েছে। এ যেন এক নায়কের দুঃখজনক পতন।
রেহাম খান জানান, ক্ষমতা সহজ বিষয় নয়। ক্ষমতার সাথে ইমরানকে মানিয়ে নেওয়া ও ছাড় দেওয়া শিখতে হবে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই জানা যাবে ইমরান এই শীর্ষ পদের যোগ্য কিনা। নির্বাচনি ফলে ইমরানের দলের স্পষ্ট জয়ে পাকিস্তানিদের অবাক হওয়ার বিষয়টি আমাকে অবাক করেছে। আন্তর্জাতিক মিডিয়া এই নির্বাচনকে ‘সবচেয়ে নোংরা’ বললেও এতটা নোংরা হবে বলে আমি ভাবেননি।
রেহাম বলেন, কয়েকদিন ধরে তাকেই সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী ভাবা হচ্ছে। আমরা তাকেই প্রধানমন্ত্রী ধরে নিয়েছি। কিছু দিনের মধ্যেই তিনি দায়িত্ব নেবেন। তবে এ দায়িত্বই এই মাথায় বোঝা হয়ে যাবে। এই মুকুটের জন্য তাকে বড় ধরনের মূল্য দিতে হয়েছে, হারাতে হয়েছে সততা। অনেক কিছু মানিয়ে নিয়ে, ছাড় দিয়ে, সমঝোতার মাধ্যমে এই ক্ষমতা পেতে হয়েছে।
২০১৫ সালে সাংবাদিক রেহামকে বিয়ে করেন ইমরান। এটা তার দ্বিতীয় বিয়ে ছিল। রেহাম বিবিসির সংবাদ উপস্থাপিকা ছিলেন। ওই বিয়ে মাত্র ১০ মাস টিকে ছিল।

বাংলাটুডে২৪/আর এইচ

Comments are closed.