rockland bd

ফরিদপুরে আবারো ৫ টি নির্বাচনী আসন হবে-প্রধান নির্বাচন কমিশনার

0

নাজমুল হাসান নিরব, চরভদ্রাসন (ফরিদপুর) প্রতিনিধি
ফরিদপুর(৪),ভাঙ্গা-সদরপুর-চরভদ্রাসন উপজেলাগুলো আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসন ভেঙে দু’টি আসন করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। তিনি বলেন, “২০০৮ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রক্কালে দু’টি আসন ভেঙে ভাঙ্গা-সদরপুর ও চরভদ্রাসন উপজেলা মিলে একটি আসন গড়া হয়। সংশ্লিষ্টদের উক্ত সিদ্ধান্ত মারাত্মক ভুল ছিল বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে সদরপুর ও চরভদ্রাসন উপজেলা মিলে একটি আসন এবং ভাঙ্গা উপজেলায় পৃথক আরেকটি সংসদীয় আসন গড়া হবে। এতে ফরিদপুর জেলায় সংসদীয় আসন হবে মোট পাঁচটি। তিনি বলেন, সারা দেশে মোট ০৫টি আসন পূনঃবিন্যাস করা হবে। এরমধ্যে চরভদ্রাসন ও সদরপুর উপজেলা নিয়ে গড়া হবে ফরিদপুর ০৪ আসন। আর ভাঙ্গা উপজেলায় একটি পৃথক আসন গড়া হবে, যেটা ফরিদপুর- ০৫ আসন নামে পরিচিত পাবে।

গত মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদ সন্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান কালে নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা এসব কথা বলেন। মতবিনিময় সভার সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অ.দা.) পূরবী গোলদার। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোবাশ্বের হোসেন, নির্বাচনী কর্মকর্তা মোঃ নুরুজ্জামান তালুকদার ও ফরিদপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আতিকুর রহমান।

সভায় অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য দেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ মোশারফ হোসেন মোশা, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মোতালেব হোসেন মোল্যা, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আজাদ খান ও মোঃ ইয়াকুব আলী ও স্থানীয় ব্যাক্তিবর্গ।
উল্লেখ্য ১৯৮৩ সালে চরভদ্রাসন উপজেলা প্রথম উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদান করেছিলেন কে এম নুরুল হুদা। সেই সুত্রে তিনি চরভদ্রাসন উপজেলার সাবেক ইএনও। তার সময়ে তিনি চরভদ্রাসনে অসংখ্য উন্নয়নমূলক কাজ করে গেছেন।যার জন্য আজও চরভদ্রাসনের মানুষের কাছে তিনি একজন পছন্দনীয় ব্যাক্তিত্ব।

Comments are closed.