rockland bd

ইসরাইলি শাসকদের মধ্যে হিটলারের আত্মা পুনর্জন্ম নিয়েছে: এরদোগান

0

বিদেশ, জেরুজালেম পোস্ট


ইসরাইলের বিতর্কিত ‘নেশন-স্টেট’ বিলের সমালোচনা করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান বলেছেন, এর উদ্দেশ্য নিপীড়নকে বৈধতা দেয়া। এটি প্রমাণ করে যে ইসরাইল একটি ফ্যাসিবাদী ও বর্ণবাদী রাষ্ট্র যেখানে অ্যাডলফ হিটলারের আত্মা পুনর্জন্ম নিয়েছে।
মঙ্গলবার পার্লামেন্টে ক্ষমতাসীন এক পার্টির সদস্যদের উদ্দেশ্য দেয়া ভাষণে এরদোগান এসব কথা বলেন।
আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ইসরাইলের বিরুদ্ধে একত্রিত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে এরদোগান বলেন, ‘এই আইনের পাসের মাধ্যমে এটা প্রমাণিত হলো যে ইসরাইল বিশ্বের সবচেয়ে জায়নিস্ট, ফ্যাসিবাদী ও বর্ণবাদী একটি দেশ।’
তিনি বলেন, ‘ইসরাইলি পার্লামেন্ট ‘ইহুদি জাতীয়-রাষ্ট্র’ আইন পাস করে দেশটি তার প্রকৃত উদ্দেশ্য বিশ্ববাসীর সামনে উন্মোচন করে দিয়েছে। আর এই উদ্দেশ্য হচ্ছে- তাদের সব বেআইনি কাজ এবং নিপীড়নকে বৈধতা দেয়া। হিটলারের চিন্তা-চেতনা এবং ইসরাইলের মানসিকতার মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই। হিটলারের আত্মা ইসরাইলের প্রশাসকদের মধ্যে পুনরায় আবির্ভূত হয়েছে।’
‘ইহুদি জাতীয়-রাষ্ট্র’ বিলটি পাসের মাধ্যমে ইসরাইলকে একটি ইহুদি রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। গত সপ্তাহে বিলটি ইসরাইলি পার্লামেন্ট ‘নেসেটে’ এটি পাস করা হয়।
এরদোগান তার ভাষণে আরো বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ট্যাঙ্ক ও আর্টিলারি দিয়ে আক্রমণ করে ইসরাইল নিজেই নিজেকে ‘সন্ত্রাসী রাষ্ট্র’ হিসেবে বিশ্বের কাছে তুলে ধরেছে। সন্ত্রাসী দেশটির এই পদক্ষেপ এই অঞ্চল ও বিশ্বকে রক্ত ও যন্ত্রণায় ডুবিয়ে দিয়েছে।’
গত ১৫ মে মাসে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের দিন গাজা সীমান্তে ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় প্রায় ৬৫ জন ফিলিস্তিনি নিহতের ঘটনায় সৃষ্ট দ্বন্দ্বে তুরস্ক ও ইসরাইল একে অপরের শীর্ষ কূটনীতিকদের বহিষ্কার করে। যাইহোক, উভয় পক্ষ পরস্পরের সঙ্গে ব্যবসা অব্যাহত রেখেছে।
ফিলিস্তিন এবং জেরুজালেমের অবস্থা সম্পর্কে ইসরাইলের নীতি নিয়ে উভয় দেশের দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্ব চলছে।

বাংলাটুডে২৪/এবিএস

Comments are closed.