rockland bd

শাহজাদপুরে ৬০ বছর বয়সী মাতবর কর্তৃক ১ম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

0

মাসুদ মোশাররফ, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

শাহজাদপুর উপজেলার যুগ্নীদহ গ্রামে ৩ লম্পট যুবক কর্তৃক পলি খাতুন নামের এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের পর হত্যা করার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও উপজেলার ৪নং রূপবাটি ইউনিয়নের শেলাচাপড়ী মোল্লাপাড়া মহল্লার ৬০ বছর বয়সী ওহাব মোল্লা নামের এক গ্রাম্য মাতবর কর্তৃক একই মহল্লার রমজান মোল্লার ১ম শ্রেণি পড়ু–য়া স্কুলছাত্রী শিশুকন্যা (৬) কে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। প্রাণভয়ে স্কুলছাত্রী শিশুটি কয়েকদিন ঘটনাটি চেপে রাখলেও বর্তমানে তার পেট অসহনীয় ব্যাথাজনিত কারণে গত ২ দিন আগে বাধ্য হয়ে স্কুলছাত্রী শিশু তার বাবা, মা, আত্মীয় স্বজনকে ধর্ষণের ঘটনাটি জানালে তার পিতা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গ্রাম প্রধানদের কাছে সুবিচার দাবি করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিষয়টি ধামাচাপা দিতে ও আপোষরফার লক্ষ্যে গ্রাম্য মাতবরেরা গ্রাম্য শালিশ বৈঠকের আয়োজন করছে বলে জানা গেছে।
সরেজমিন পরিদর্শনে স্কুলছাত্রী শিশু তার ভাই রাজুসহ এলাকাবাসী জানায়, ‘গত কয়েকদিন পূর্বে শেলাচাপড়ী মোল্লাপাড়া মহল্লার ওহাব মোল্লা নামের এক গ্রাম্য মাতবর একই গ্রামের রমজান মোল্লার শিশুকন্যা, স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১ম শ্রেণির ছাত্রী (৬) কে পিয়াজের সোডা দেয়ার লোভ দেখিয়ে ওই টিন ও ছাপড়া একটি ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় শিশুটি আত্মচিৎকার শুনে ওই গ্রামের আয়নাল মোল্লার মেয়ে রাজিয়া ঘটনাটি দেখে ফেললে লম্পট ওহাব মোল্লা তাদের ভয়ভীতি দেখিয়ে স্কুলছাত্রী শিশুকে ছেড়ে দেয়। ভয় পেয়ে তারা ঘটনাটি চেপে যায়। কিন্তু এর পর থেকেই ধর্ষিতা শিশুটি পেটের ব্যাথা সহ্য করতে না পেরে মাঝে মধ্যেই কান্নাকাটি করতে থাকে। লম্পট ওহাব মোল্লা ইতিপূর্বে জনৈক রাজেনের ৬/৭ বছর বয়সী শিশুকন্যার সাথেও এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে প্রভাব খাটিয়ে তা ধামাচাপা দেয় বলেও এলাকাবাসী অভিযোগ করেছে।’
এ বিষয়ে স্কুলছাত্রী শিশুর ভাই রাজু আহমেদ বলেন, ‘ পেটের ব্যাথা সহ্য করতে না পেরে তার বোন ২ দিন আগে ঘটনাটি পরিবারের কাছে খুলে বললে তার পিতা গ্রাম প্রধানদের কাছে ২ দিন আগে বিচার দাবি করে। যে কোন সময় গ্রাম্য শালিষ বৈঠক হতে পারে।’
এ বিষয়ে এদিন ( সোমবার ) বিকেলে ওহাব মোল্লার বক্তব্য জানতে তার বাড়িতে যাওয়া হলে তাকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি এবং পরিবারের কাছে তার মোবাইল ফোন নাম্বার চাইলে সংবাদকর্মীদের পরিবারের পক্ষ থেকে ফোন নাম্বার দিতেও অপারগতা প্রকাশ করা হয়। অন্যদিকে, এসব বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইউপি মেম্বর ইউসুফের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি সাংবাদিককের জানান, ‘শুনেছি আজ ( সোমবার) রাতে গ্রাম প্রধানেরা এ বিষয়ে বসবেন।’

লিখন/বাংলা টুডে

Comments are closed.