rockland bd

শাজাহানপুরে গরিবের ডাক্তার মেহেরুল আলম

0


আব্দুল ওয়াদুদ, শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি (বাংলাটুডে) : 
মেহেরুল আলম মিশু। শাজাহানপুরের লোকে তাঁকে চেনে গরিবের ডাক্তার নামে। প্রতি শুক্রবার ফ্রি রোগী দেখছেন। দীর্ঘ ২ বছর ধরে গরীব, অসহায় মানুষের সেবা দিয়ে যাচ্ছে শাজাহানপুরে।
এখন শেরপুর উপজেলার ফুলবাড়ী ও ফ্রি রোগী দেখেন। শুধু রোগী ফ্রি নয় বরং চাকুরীর অর্ধেক টাকায় ঔষধ কিনে গরীব রোগীদের মাঝে বিলিয়ে দেন। নানা জায়গা থেকে আসে তারা। বড় অংশই ভ্যানচালক, রিকশাচালক, দিনমজুর বা এ রকম পেশার লোক।
২০১৭ সালে টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করে ২০১৭ সাল থেকেই এই মহৎ কাজটিতে যুক্ত হন তিনি।
শাজাহানপুর গরিবের ডাক্তার বলতে ডাঃ মেহেরুল আলম মিশুকেই চেনেন সবাই। বগুড়া সামছুন্নাহার ক্লিনিকের একজন মেডিকেল অফিসার ও বগুড়া টিএমএসএস কলেজ এবং বগুড়া রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালের অর্থোপেডিক্স ও ট্রমাটোলজি বিভাগের ডাক্তারদের মধ্যে একজন তিনি। বেতনের অর্ধেক টাকায় ঔষধ কিনে গরীব রোগীদের মাঝে বিলিয়ে দেন। শুধু ডিগ্রী নয় জ্ঞানে, গুণে, হাত যশে মহান এই মানুষটি জয় করছেন মানুষের মন।
ডাঃ মিশু বলেন, আমার কাছে কোন ভিজিটের টাকা দিতে হয় না। একজন গরীব মানুষ যে টাকা ভিজিট দেবে সেই টাকায় যেন ঔষধ কিনে খেতে পারে। সপ্তাহের বাঁকি দিনগুলোর ভিজিট নির্ধারিত না থাকলেও যে যা দেন তা একটি ফান্ডে রেখে বিভিন্ন উৎসবে গরীব অসহায়, সুবিধা বঞ্চিত মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেন। মানুষ তাকে চিনতে হলে তার কাজের গুণেই চিনবেন বলে জানান মিশু।
তিনি বলেন, আমার বাবা মা দুজনই ইনকাম করেন আমার টাকা তাদের নিতে হয় না বরং তাদের নিকট হতে আমি টাকা নিয়ে অনেক সময় ঔষধ কিনে গরীব অসহায়দের সাহায্য করি। তার বাবা একজন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও মা সরকারী চাকুরিজীবী । বাবা মার একমাত্র সন্তান ডাক্তার মিশুর জীবনের লক্ষ মহান এই পেশায় মানুষের সেবা করে যাবেন আজীবন। সাদা মনের এই অসাধারণ মানুষটি সত্যিকারের গরিবের ডাক্তার।

আমিন/২৫মার্চ/২০১৯

Comments are closed.