rockland bd

নতুন শাসন ব্যবস্থায় তুরস্ককে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয় এরদোগানের

0

বিদেশ, আল জাজিরা


রাশেদুল হাসান: প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার মধ্যমে তুরস্কের ইতিহাসে একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা করলেন রজব তৈয়্যব এরদোগান। শপথ নেয়ার পর প্রথম ভাষনে তিনি দেশটির সূচিত নতুন অধ্যায়ে সবাইকে স্বাগত জানান। প্রথম ভাষনেই এরদোগান ক্রমান্বয়ে প্রতিবছর দেশের উন্নতিসাধনের অঙ্গিকার করেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছেন রজব তৈয়্যব এরদোগান।


গত মাসে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এরদোগান দ্বিতীয়বারের জন্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এর মধ্য দিয়ে তিনি তুরস্কের প্রথম নির্বাহী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহন করলেন।

নতুন ব্যবস্থায় ৬৪ বছর বয়সী এরদোগান রাষ্ট্রীয় নির্বাহী শাখাকে নেতৃত্ব দিবেন এবং পার্লামেন্টের অনুমোদন ছাড়াই ভাইস প্রেসিডেন্ট, মন্ত্রী, উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং ঊর্ধ্বতন বিচারপতিদের নিয়োগ কিংবা বরখাস্ত করার অধিকারী হবেন।

এছাড়াও, পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার ক্ষমতা সহ কার্যনির্বাহী আদেশ জারি করা এবং জরুরি অবস্থা আরোপ করার ক্ষমতা পাবেন প্রেসিডেন্ট। নতুন ব্যবস্থায় প্রধানমন্ত্রী পদের বিলুপ্তি ঘটেছে।

রাজধানি আঙ্কারয় প্রেসিডেন্ট ভবনে দেয়া ভাষনে এরদোগান বলেন, নতুন যুগের সূচনায় তুরস্ক গনতন্ত্র, মৌলিক অধিকার, স্বাধীনতা, অর্থনীতি ও বৃহৎ বিনিয়োগসহ প্রত্যেকটি শাখায় উন্নতি করবে।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান নতুন প্রেসিডেন্সি ব্যবস্থায় ১৬ সদস্যের নতুন মন্ত্রিসভার নাম ঘোষণা করে বলেছেন, নতুন এই প্রশাসন ব্যবস্থাটি নির্বাহী শাখাকে আরো দক্ষ করে তুলবে।

নিবার্হী প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার পর সোমবার সন্ধ্যায় তিনি নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা করেন।

তুরস্কের নতুন মন্ত্রিসভায় এরদোগানের চমক।


এরদোগান তার ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবে ফুয়াত ওকাতায়’র নাম ঘোষণা করেন। পূর্ববর্তী সরকারে তিনি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর দুর্যোগ এবং জরুরি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের প্রধান।

এদিকে, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভাসোগলু এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলিমান সোয়োলুকে তাদের আগের পদেই বহাল রাখা হয়েছে।

নতুন মন্ত্রিসভার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন হচ্ছে-সাবেক জ্বালানি মন্ত্রী বেরাত আলবায়েরাক পেয়েছেন ট্রেজারি এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব এবং সেনা প্রধান (প্রধান স্টাফ জেনারেল) হুলুসি আকার নতুন মন্ত্রিসভায় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসাবে সরকারে যোগদান করেছেন।

গতকাল সোমবার এরদোগানের অভিষেক অনুষ্ঠানটি ছিলো পার্লামেন্টারি পদ্ধতি থেকে নির্বাহী প্রেসিডেন্ট ব্যবস্থায় রূপান্তর হওয়ার। ২০১৭ সালে গনভোটের মধ্যমে সংবিধান সংশিধনের মধ্যমে এরদোগান এ ব্যবস্থার প্রবর্তন ঘটান।

বাংলাটুডে২৪/আর এইচ

Comments are closed.