rockland bd

শেষ ওভারে ফ্রাইলিঙ্কের তিন ছক্কায় কুপকাত ঢাকা

0

এক ফ্রাইলিংকেই চিটাগংয়ের কাছে হার ঢাকার

খেলা ডেস্ক, ঢাকা
মঙ্গলবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
ঢাকা ডায়নামাইটনের বিপক্ষে শেষ ওভারে ম্যাচ জয়ের জন্য চিটাগং ভাইকিংসের প্রয়োজন ছিলো ১৬ রান। এমন কঠিন কাজটি অবলীলায় করে দেখিয়েছেন চিটাগং’র দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড় রবি ফ্রাইলিঙ্ক। শেষ ওভারে তিনটি ছক্কা হাকিয়ে চিটাগংকে ৩ উইকেটের দারুণ এক জয় উপহার দিয়েই মাঠ ছাড়েন ফ্রাইলিঙ্ক। চিটাগং’র এ জয়ে এবারের আসরে দ্বিতীয় হারের স্বাদ পেল ঢাকা। ৭ খেলায় ৫ জয় ও ২ হারে ১০ পয়েন্ট সংগ্রহে আছে ঢাকার। অপরদিকে, ৬ ম্যাচে ৫ জয় ও ১ হারে ১০ পয়েন্ট সংগ্রহে আছে চিটাগং’রও।
মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ম্যাচে ঢাকার পক্ষে ব্যাট হাতে বড় ইনিংস খেলতে পারেননি কোন ব্যাটসম্যান। চিটাগং ভাইকিংস বেলারদের সামনে অসহায় ছিলেন ঢাকার ব্যাটসম্যানরা।
অধিনায়ক সাকিব আল হাসান সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন। ৩৪ বল মোকাবেলা করে ২টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন তিনি। তবে ইনিংসের শেষ দিকে ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন শুভাগত হোম। ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ১৫ বলে ২৯ রান করেন তিনি। মূলত তার ঐ ঝড়ো ছোট ইনিংসের কল্যানেই ১৩৯ রানের পুঁিজ পায় ঢাকা।
এছাড়া উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান ১৮ বলে ২৭ ও সুনীল নারাইন-দক্ষিণ আফ্রিকার হেইনো কুন ১৮ রান করে করেন।
চিটাগং ভাইকিংসের দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড় ক্যামেরন ডেলপোর্ট ২৫ রানে ৩ উইকেট নেন।
জবাবে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই চিটাগং ওপেনার আফগানিস্তানের মোহাম্মদ শাহজাদকে বিদায়করেন আন্দ্রে রাসেল। তবে আরেক ওপেনার ডেলপোর্ট চড়াও হন ঢাকার বোলারদের উপর। ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় রানের গতি অনেকখানি বাড়িয়ে রাখেন ডেলপোর্ট। কিন্তু ডেলপোর্টকে ১২ বলে ৩০ রানের বেশি করতে দেননি ঢাকার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।
৩২ রানে ২ উইকেট হারানোর পর দলের হাল ধরেন ইয়াসির আলি ও অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। কিন্তু দু’জনের কেউই বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। ইয়াসির ১৫ ও মুশফিক ২২ রানে থেমে যান।
এরপর ব্যাট হাতে লড়াই করেন মোসাদ্দেক হোসেন। স্ঙ্গীর অভাব থাকলেও রানের চাকা ঘুড়িয়েছেন তিনি। কিন্তু সেটি ছিলো ধীরগতির। ৩৯ বলে ৩৩ রান তুলে মোসাদ্দেক রান আউটের শিকার বলে জয়ের জন্য চিটাগং’র ১০ বলে ২১ রান প্রয়োজন পড়ে। শেষ ওভারে ম্যাচ জয়ের সমীকরন দাড়ায় ১৬ রানে। ব্যাট হাতে ক্রিজে ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার রবি ফ্রাইলিঙ্ক ও সানজামুল ইসলাম।
ঢাকার পেসার মোহর শেখের করা শেষ ওভারের দ্বিতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম বলে তিনটি ছক্কা হাকিয়ে চিটাগং’কে স্মরণীয় জয় এনে দেন ফ্রাইলিঙ্ক। ৩টি ছক্কায় ১০ বলে ২৫ রানে অপরাজিত এবং বল হাতে ২ উইকেট শিকার করে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত ফ্রাইলিঙ্ক। ঢাকার সাকিব ১৬ রানে ৪ উইকেট নিয়েও, দলের হার এড়াতে পারেননি।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
ঢাকা ডায়নামাইটস : ১৩৯/৯, ২০ ওভার (সাকিব ৩৪, শুভাগত ২৯, ডেলপোর্ট ৩/২৫)।
চিটাগং ভাইকিংস : ১৪৫/৭, ১৯.৫ ওভার (মোসাদ্দেক ৩৩, ডেলপোর্ট ৩০, সাকিব ৪/১৬)।
ফল : চিটাগং ভাইকিংস ৩ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : রবি ফ্রাইলিঙ্ক( চিটাগং ভাইকিংস)

আর এইচ

Comments are closed.