rockland bd

সন্তানদের বিরুদ্ধে প্রতরণা করে বৃদ্ধ মায়ের জমি হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

0

সন্তানদের বিরুদ্ধে প্রতরণা করে বৃদ্ধ মায়ের জমি হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

উপজেলা প্রতিনিধি, গুরুদাসপুর
বৃহস্পতিবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
৭৭ বছরের বৃদ্ধা রোয়াজান বেওয়ারের নিজ নামের সাড়ে ৪৪ শতাংশ জমি গোপনে রেজিষ্ট্রি করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তারই সন্তান নজরুল ও সায়রা বেগমের বিরুদ্ধে। চলতি বছরের জুন মাসে মায়ের অসুস্থ্যতার সুযোগে দুই ভাই-বোন মায়ের সাথে ওই প্রতরণা করেছে। প্রতারণার শিকার রোয়াজান বেওয়া এখন নিজের জমি ফিরে পেতে আকুতি জানিয়েছেন।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজের জমি ফিরে পেতে নিজ বাড়িতে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ওই বৃদ্ধা। এসময় উপস্থিত ছিলেন তার ছেলে মতিউর রহমান, নজিবুদ্দিন, রমজান আলী, মিজানুর রহমান ও মেয়ে সফুরা বেগম।
সন্তানদের কাছে প্রতারণার শিকার রোয়াজান বেওয়ার বাড়ি নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর মোল্লা পাড়া গ্রামে। রোয়াজান বেওয়ার আট সন্তানের মধ্যে দুই মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন আগেই। আর মেঝো ছেলে মতিউরের কাছে স্বামীর বসত ভিটাতেই বসবাস করতেন তিনি।
রোয়াজান বেওয়া দাবি করেন, ৩০ বছর আগে তিনি স্বামীকে হারিয়েছেন। এরপর থেকে অন্য ছেলেরা পৃথক রয়েছেন। আর তিনি মেঝো ছেলের সাথে বসবাস করেন। হঠাৎ ছয় মাস আগে তিনি অসুস্থ্য হয়ে পড়েন, তার চিকিৎসার জন্য ছেলে নজরুল ইসলাম ও বড় মেয়ে সায়েরা বেগম তাকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসার কথা বলে বিভিন্ন কাগজপত্রে তার টিপ সই নেন।
এরপর গত ১ জানুয়ারী প্রতারক ছেলে মেয়ে রোয়াজান বেওয়ার নামে লিখিত নাজিরপুর মৌজার ২৭৭ ও ৩২৬ নম্বর দাগের সারে ৪৪ শতাংশ জমি তাদের বলে দাবি করেন। এঘটনায় রোয়াজান বেওয়ার অন্য ছেলে মেয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন ৬ ওয়ারিশদের গোপন করে তাদের মায়ের সম্পত্তি রেজিষ্ট্রি করে নিয়েছেন প্রতারক নজরুল ও সায়রা।
রোয়াজান বেওয়া হারানো সম্পত্তি ফিরে পেতে আকুতি জানিয়ে আরো বলেন, তার নিজ নামীয় ওই সাড়ে ৪৪ শতাংশ জমিই ছিল সম্বল। কিন্তু অসুস্থ্যতার সুযোগ নিয়ে ছেলে নজরুল ও মেয়ে সায়রা তার সহায় সম্বল প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়েছে। এখন ওই সম্পত্তি না থাকায় তার কোন সন্তানই তাকে দেখভালের দায়িত্ব নিতে চাইছেন না। তাই তিনি ওই সম্পত্তি ফেরত পেতে আকুতি জানিয়েছেন।
প্রতারক নজরুল জানান, এ বিষয়ে সালিশে তার মায়ের সম্পত্তি ফেরত দেওয়ার কথা হয়েছে। যে কোন সময় জমি ফেরত দেওয়া হবে।
নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত রানা লাবু বলেন, এ বিষয়ে ভুক্তভোগি রোয়াজান বেওয়ার একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাদের উভয় পক্ষকে নোটিশের মাধ্যমে পরিষদে ডাকা হয়েছে। আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ডিএমদিলু/আর এইচ

Comments are closed.