rockland bd

অবশেষে সিলেটে জয়ের মুখ দেখল খুলনা

0

অবশেষে সিলেটে জয়ের মুখ দেখল খুলনা

খেলা ডেস্ক, সিলেট
মঙ্গলবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
প্রথম চার ম্যাচ হারের পর অবশেষে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসরে সিলেট পর্বের প্রথম ম্যাচেই জয়ের দেখা পেল খুলনা টাইটান্স। টুর্নামেন্টের ১৫তম ও নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে আজ খুলনা ২৫ রানে হারিয়েছে রাজশাহী কিংসকে। এই জয়ে ৫ ম্যাচে ২ পয়েন্ট সংগ্রহে আছে খুলনার। সমানসংখ্যক ম্যাচে ২ জয় ৩ হারে ৪ পয়েন্ট রাজশাহীর।
খুলনার পঞ্চম ম্যাচেও ব্যাট হাতে জ্বলে উঠতে পারেনি দলের ব্যাটসম্যানরা। উপরের সারির প্রথম তিন ব্যাটসম্যান দু’অংকের কোটা পেরোতে পারলেও, বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। দুই ওপেনার জহিরুল ইসলাম ১৩ ও জুনায়েদ সিদ্দিকী ১৪ রান করেন। তিন নম্বরে নেমে ১৫ রানের বেশি করতে পারেননি ইংল্যান্ডের ডেভিড মালান।
এরপর ব্যর্থতার পরিচয় দেয় খুলনার মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যানরাও। অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৯, নাজমুল হোসেন শান্ত ১১ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কার্লোস ব্র্যাথওয়েট ৮ রান করে ফিরেন। তাই খুলনার বড় সংগ্রহে সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত আরিফুল হকের ২৭ বলে ২৬ ও দক্ষিণ আফ্রিকার ডেভিড উইসের ১৩ রানে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১২৮ রান করতে পারে খুলনা টাইটান্স। রাজশাহীর শ্রীলংকান বোলার ইসুরু উদানা-অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজ-আরাফাত সানি ২টি করে উইকেট নেন।
জয়ের জন্য ১২৯ রানের সহজ টার্গেটে শুরুটা ভালো হয়নি রাজশাহী কিংসের। প্রথম ওভারের চতুর্থ বলে প্যাভিলিয়নে ফিরেন ইংল্যান্ডের লরি ইভান্স। রানের খাতাই খুলতে পারেননি তিনি। তবে তিন নম্বরে ব্যাট হাতে নেমে দ্রুতই রান তুলতে থাকেন অধিনায়ক মিরাজ। ২টি চার ও ১টি ছক্কায় নিজের ইনিংস শুরু করেছিলেন মিরাজ। তবে অন্যপ্রান্ত দিয়ে মিরাজকে বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে পারেননি মোমিনুল। ৭ রানে আউট হন তিনি। এরপর আউট হন মিরাজও। ১৬ বলে ২৩ রান করেন তিনি।
ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে মিরাজকে শিকারের পর চার নম্বরে ব্যাট হাতে নামা সৌম্যকেও বিদায় নেন খুলনার স্পিনার তাইজুল ইসলাম। ২ রান করেন সৌম্য। উপরের সারির ব্যাটসম্যানদের মত ব্যর্থতা প্রদর্শন করেন পরের দিকের খেলোয়াড়রাও। তাই ১০৩ রানেই গুটিয়ে যায় রাজশাহী। পরের দিকে, আরাফাত সানি-দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস্টিয়ান জঙ্কার ১৫ রান করে, নেদারল্যান্ডসের রায়ান টেন ডসেট -কামরুল ইসলাম রাব্বি ১৩ রান করে করেন। খুলনার পাকিস্তানী খেলোয়াড় জুনায়েদ খান ও তাইজুল ইসলাম ৩টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
খুলনা টাইটান্স : ১২৮/৯, ২০ ওভার (আরিফুল ২৬, মালান ১৫, মিরাজ ২/২১)।
রাজশাহী কিংস : ১০৩/১০, ১৯.৫ ওভার (মিরাজ ২৩, সানি ১৫, তাইজুল ৩/১০)।
ফল : খুলনা টাইটান্স ২৫ রানে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : তাইজুল ইসলাম(খুলনা টাইটান্স)।

আর এইচ

Comments are closed.