rockland bd

আমি কখনো বলিনি সংলাপ হবে: ওবায়দুল কাদের

0

ডেস্ক প্রতিবেদন, ঢাকা
মঙ্গলবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমি কখনও সংলাপের কথা বলিনি। যার অডিও-ভিডিও রয়েছে। এর পরও কেন ধূম্রজাল সৃষ্টি করা হচ্ছে। এখানে সংলাপের কোনো বিষয় নেই।
আজ (মঙ্গলবার) বেলা সাড়ে ১১টায় ধানমন্ডি হোয়াইট হল কনভেনশন সেন্টারে ১৯ জানুয়ারি একাদশ সংসদ নির্বাচনের বিজয় সমাবেশ উপলক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপে একাদশ সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গ অ্যাজেন্ডা হিসেবে থাকলে বিএনপি সাড়া দেবে, দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখানে সংলাপের বিষয় এলো কোথা থেকে। আর নির্বাচন নিয়ে সংলাপ কেন করতে যাব। যেখানে সারা গণতান্ত্রিক বিশ্বের নেতারা নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার জন্য অভিনন্দন জানাচ্ছেন, সেখানে সংলাপ কেন হবে। আমন্ত্রণ জানানো মানে তো সংলাপ না।
ওবায়দুল কাদের বলেন, সংলাপ নিয়ে ধূম্রজালের কথা বলা হচ্ছে। সংলাপ নিয়ে তো আমরা কিছু বলিনি। এখন কেউ যদি মনগড়া সংবাদ পরিবেশন করেন কি করার আছে? আমার সব বক্তব্যের অডিও, ভিডিও রেকর্ড রয়েছে। আমি কখনো বলিনি সংলাপ হবে। আমার বক্তব্যে সংলাপের কোনো বিষয় নেই।
তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনের আগে ঐক্যফ্রন্ট, বিএনপি, যুক্তফ্রন্ট, বামদল, জাতীয় পার্টি, ইসলামী দলসহ ৭৫টি দলের সঙ্গে বিভিন্ন পর্যায়ে সংলাপ করেছেন। সেই দলগুলোকে বা দলের নেতাদের তিনি গণভবনে আমন্ত্রণ জানাতে চান শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য। আমন্ত্রণ জানানোর অর্থ সংলাপ নয়। আর নির্বাচন নিয়ে সংলাপের প্রয়োজনও নেই। এ নিয়ে ধূম্রজাল কেনো হবে?’
কাদের দাবি করেন, এই নির্বাচন দেশে-বিদেশে আন্তর্জাতিকভাবে সমাদৃত হয়েছে, প্রশংসিত হচ্ছে। গণতান্ত্রিক বিশ্ব, জাতিসংঘ পর্যন্ত স্টেটমেন্ট দিয়েছে যে এই সরকারের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত। তাছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, চীনসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশ, মুসলিম বিশ্ব এই নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার জন্য আমাদের দল ও নেত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। কাজেই নির্বাচন নিয়ে সংলাপ- এটা হাস্যকর বিষয়। প্রধানমন্ত্রী একবারও সংলাপের কথা বলেননি।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গত রোববার সংলাপের প্রসঙ্গটি তুলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে যেসব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ হয়েছিল, তাদের আবার আমন্ত্রণ জানাবেন প্রধানমন্ত্রী।
এ বিষয়ে সিলেটে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সংলাপের অ্যাজেন্ডা তো আমরা জানি না। নিঃসন্দেহে যখন আমাদের অ্যাজেন্ডা জানাবেন, তখন আমরা সে বিষয়ে বিবেচনা করব।’
এদিকে, আজ দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচন বাতিলের অ্যাজেন্ডা থাকলেই তাঁরা সংলাপে যাবেন। না হলে যাবেন না। এটা ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির সিদ্ধান্ত।-পার্সটুডে

এবিএস

Comments are closed.