rockland bd

মুসলমানরা বাদ, শুধু অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব বিল পাস করলো ভারত

0

মুসলমানদের বাদ দিয়ে শুধু অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব বিল পাস করলো ভারত।

বিদেশ ডেস্ক
বুধবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
কমপক্ষে ৬ বছর ধরে বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং আফগানিস্তানের যেসব অমুসলিম শরণার্থী ভারতে আশ্রয় নিয়েছে তাদের নাগরিকত্ব দিতে বিল পাস করেছে ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভা।
কমপক্ষে ৬ বছর ধরে বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং আফগানিস্তানের যেসব অমুসলিম শরণার্থী ভারতে আশ্রয় নিয়েছে তাদের নাগরিকত্ব দিতে বিল পাস করেছে ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভা।
অমুসলিম শরণার্থীদের তালিকায় রাখা হয়েছে হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি, শিখ এবং খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষদের। এ আইন থেকে বাদ দেয়া হয়েছে মুসলিমদের।
সমালোচকরা বলছেন, আগামী মে মাসে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে ভোটারদের সন্তুষ্ট করতে এই পদক্ষেপ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই বিল পাস হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই কেন্দ্রের কড়া বিরোধিতায় সরব হয়েছে উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজনৈতিক দলগুলি।
এই বিল আইনের ফলে প্রতিবেশী দেশগুলিতে ধর্মীয় প্রতিহিংসার শিকার হয়ে কেউ ভারতবর্ষে থাকার আবেদন করলে মিলবে এ দেশের নাগরিকত্ব। বাংলাদেশ থেকে যেসব হিন্দু ২০১৪ সাল পর্যন্ত মূলত আসাম এবং উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোতে চলে গিয়েছিল, তারা ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়ার অধিকারী হবেন।
এ বিলকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে উঠেছে আসামও। আসাম গণপরিষদ, অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়নসহ (আসু) প্রায় সব গণসংগঠন এই বিলের বিরোধিতায় একাট্টা।
এদিকে ‘বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিলকে’ কেন্দ্র করে বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেছে আসাম গণপরিষদ। সোমবার দিল্লি থেকে গুয়াহাটি ফিরে বিজেপির সঙ্গ ছাড়ার ঘোষণা দেন গণপরিষদ সভাপতি অতুল বরা।
দেশটির সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে আসামে নাগরিকদের যে তালিকা (এনআরসি) তৈরির কাজ চলছে তাতে প্রায় ৪০ লাখ আসামবাসীর নাম বাদ পড়েছে। বিষয়টি নিয়ে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাঙালিদের উৎকণ্ঠার শেষ নেই। ১৯৭১ সালের নথি সংগ্রহ করতে না পেরে ১০ লক্ষাধিক মানুষ নতুন করে আবেদন করতে পারেননি। সূত্র: আরটি

আর এইচ

Comments are closed.