rockland bd

গুরুদাসপুরে জেঁকে বসেছে শীত, কষ্টে দরিদ্র জনগোষ্ঠী

0

গুরুদাসপুরে জেঁকে বসেছে শীত, কষ্টে দরিদ্র জনগোষ্ঠী

গুরুদাসপুর প্রতিনিধি
রবিবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
নাটোরের গুরুদাসপুরে দেড়িতে হলেও জেঁকে বসেছে শীত। দিন দিন বাড়ছে তীব্রতা। আর শীতের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে শীতজনিত রোগব্যধি। এ উপজেলায় শীতবস্ত্রের অভাবে হতদরিদ্র পরিবারের কয়েক হাজার মানুষ কষ্ট পাচ্ছে। এরমধ্যে চলনবিল অঞ্চলের মানুষ সবচেয়ে বেশি দূর্ভোগ পোহাচ্ছে।
আর্থিক অনটনের কারণে অনেকেই শীতবস্ত্র কিনতে না পেরে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে।
পৌর সদরের চাঁচকৈড় বাজারে কম্বলসহ শীতের মোটা গরম পোষাক কিনতে আসা যোগেন্দ্রনগর গ্রামের কৃষক রাজ্জাক, বিয়াঘাট গ্রামের মকবুল ফকির, চিতলাপাড়া গ্রামের রিকসা চালক ওমর আলীসহ অনেকেই জানান, তারা শীত নিবারনে কোনো প্রকার সরকারি বেসরকারি সাহায্য পায়নি। তাদের মত অসংখ্য দরিদ্র পরিবার প্রচন্ড শীতে গবাদি পশুসহ পর্যাপ্ত শীতবস্ত্রের অভাবে দূর্ভোগ পোহাচ্ছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. রবিউল করিম শান্ত জানান, শীতজনিত কারণে শিশুদের ডায়রিয়া, আমাশয়সহ পেটের অসুখ বেড়ে গেছে। এ ব্যাপারে আমরা বিশেষ টিম গঠন করে চিকিৎসা সেবা চালিয়ে যাচ্ছি।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সারাদেশের মতো উত্তরাঞ্চলের চলনবিলাঞ্চলে শীতের তীব্রতা দিন দিন বাড়ছে। এ পর্যন্ত এলাকায় দরিদ্র শীতার্তদের মাঝে সরকারি বেসরকারিভাবে কোনো শীতবস্ত্র বিতরন করা হয়নি। তবে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মো. আব্দুল হান্নান বলেন, উপজেলার শীতার্ত অসহায় পরিবারের মধ্যে বিতরনের জন্য মাত্র ৩ হাজার কম্বল বরাদ্দ পাওয়া গেছে। যা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম। বরাদ্দ পাওয়া কম্বলগুলো বিতরন করা হচ্ছে।

মো. আখলাকুজ্জামান/আর এইচ

Comments are closed.