rockland bd

দেশজুড়ে বই উৎসব

0

বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

রাজধানীর আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে পাঠ্যপুস্তক উৎসব-২০১৭-এর উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এর পরপরই সারাদেশে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একইসাথে এই উৎসব পালিত হয়। প্রতিবছরের ন্যায় এবারও শিক্ষার্থীদের হাতে বছরের প্রথম দিনে পাঠ্যপুস্তক তুলে দিতে এ উৎসব আয়োজন করা হয়। ২০১০ সাল থেকে এ উৎসব পালিত হয়ে আসছে। উৎসব উদ্বোধনকালে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, পাঠ্যপুস্তক প্রস্তুত করা, বিতরণ ও সময়মত সকল শিক্ষার্থীর হাতে পৌঁছে দেয়া শিক্ষাক্ষেত্রে সর্ববৃহৎ কার্যক্রম। পাঠ্যপুস্তক বিতরণের এ কার্যক্রম বিশ্বে অতুলনীয়। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, গত বছর ৩৩ কোটি ৩৭ লাখ ৬২ হাজার বই বিতরণ করা হয়েছিল। এবার ৪ কোটি ২৬ লাখ ৩৫ হাজার ৯২৯ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৩৬ কোটি ২১ লাখ ৮২ হাজার ২৪৫টি বই বিতরণ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, এবারই প্রথমবারের মতো ৫টি ক্ষুদ্র জাতি-গোষ্ঠীর ভাষায় ৭৭ হাজার ২৮২টি বই ছাপানো হয়েছে। প্রাক-প্রাথমিকের ২৪ হাজার ৬৪১ জন শিক্ষার্থীর মাঝে এ বইগুলো বিতরণ করা হবে। ৫টি জাতি-গোষ্ঠী হচ্ছে মারমা, চাকমা, গারো, সাদ্রি ও ত্রিপুরা। মন্ত্রী বলেন, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য এবার ব্রেইল পদ্ধতিতেও বই ছাপা হয়েছে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) এধরনের ৯৭০৩টি বই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ১২৩১ জন শিক্ষার্থীর মাঝে বিতরণ করছে। শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, শিক্ষার গুনগতমান বৃদ্ধিই এখন চ্যালেঞ্জ। এ জন্য পরীক্ষা পদ্ধতি সংস্কারসহ বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হবে। তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মই বাংলাদেশকে মর্যাদার আসনে নিয়ে যাবে। এজন্য তাদেরকে সঠিকভাবে গড়ে তুলতে হবে।

বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর

গাইবান্ধা
সারাদেশের ন্যায় গাইবান্ধা সদর উপজেলার বোয়ালী ইউনিয়নের দক্ষিন কামারজানী উচ্চ বিদ্যালয়ে বছরের প্রথম গতকাল সকালে বিদ্যালয় চত্বরে বই বিতরন উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বই বিতরণের পূর্বে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন অত্র বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ শহিদুল ইসলাম (পটল), প্রধান শিক্ষক মোছাঃ মাহফুজা আখতার বানু, সাংবাদিক শাহজাহান সিরাজ, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও ইউপি মেম্বার ফজলার রহমান বাচ্চু, মিজানুর রহমান শামিম, গোলাম রব্বানী রিপন, মিহিনুর রহমান, সিনিয়র শিক্ষক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে অত্র বিদ্যালয়ের অন্যান্য সহকারী শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নওগাঁ
সারা দেশের ন্যায় নওগাঁর রাণীনগরে বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়েছে। উপজেলার প্রতিটি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সকাল থেকে নতুন বই নেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের উপচেপড়া ভীর লক্ষ্য করা গেছে।
বই উৎসব উপলক্ষে গতকাল উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার খাস-পারইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাণীনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাণীনগর সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়সহ সকল বিদ্যালয়ে বই উৎসবের আয়োজন করা হয়। এদিন উপজেলার খাস-পারইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন বই বিতরনের উদ্বোধন করেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো: আনছার আলী। এসময় অন্যান্য অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। নতুন বই পেয়ে শিক্ষার্থীরা উছ¦সিত ও আনন্দিত। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: আতোয়ার রহমান জানান, এবছর উপজেলার মোট ১৩০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৭৯হাজার ৫শত ৬১টি বই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা শেখ মো: আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, উপজেলার মাধ্যমিক ও এফতেদায়ীসহ মোট ৪৪টি মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে ৩লাখ ৬২হাজার বই বিতরন করা হয়েছে।

ফরিদপুর
বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বই উৎসবে ফরিদপুরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বছরের প্রথম দিনেই নতুন বই বিতরণ করা হয়েছে। নতুন বই বিতরণ উপলক্ষে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে ফরিদপুরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে। গতকাল সকালে শহরের সরদা সুন্দরী সরকারি বালিকা বিদ্যালয় চত্বরে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই নতুন প্রাণের সঞ্চার করে।
এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) মো. মোবাশ্বের হাসান, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শিবপদ দেসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও শহরের আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সকাল ৮টায় ৮শ শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ জযনুল আবেদিন, এছাড়াও শহরের হাড়–কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে বছরের প্রথম দিন বই তুলে দেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক রেহেনা পারভীন, আনসারউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক আবু জাফর বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করেন, ফরিদপুর পুলিশ লাইনস্ স্কুলের প্রধান শিক্ষক মেখ আব্দুল কাইয়ুম সকাল ৮টা থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ করেন। এছাড়াও শহরের হাড়–কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে বছরের প্রথম দিন বই তুলেদেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক রেহেনা পারভীন। এছাড়াও ফরিদপুর জেলার সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বছরের প্রথমদিনে বই বিতরণ করা হয়।

জামালপুর
জামালপুরে নতুন বছরের প্রথম দিনেই বই হাতে পেয়ে আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেছে কমলমতি শিক্ষার্থীরা। গতকাল সকালে জামালপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও জামালপুর জিলা স্কুল, জামালপুর মডেল মাদরাসা, রেলওয়ে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ জেলার ৩ লাখ ২৫ হাজার ৯০৯ জন ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ৪২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৬৩ টি বই বিতরন করা হয়। বই উৎসবে বছরের প্রথম দিনেই বই হাতে তোলেদেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর। এ সময় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজীব কুমার সরকার, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল হেলিম সরকার সহ আরো অনেকে। এ সময় বক্তরা জেলার ছাত্রছাত্রীদের মাঝে বছরের প্রথম দিনে নতুন বই উপহার দিয়ে পড়ালেখার মাধ্যমে দেশের যোগ্য নাগরিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে সকলের প্রতি আহবান জানান। কোমল মতি শিক্ষার্থীরা নতুন বই হাতে পাওয়ার পরই আনন্দে মেতে উঠেন। তাদের চোখে মুখে বাঁধ ভাঙ্গা আনন্দ লক্ষ্য করা যায়। এছাড়াও কিছু স্কুলে নতুন বই দেওয়ার নাম করে টাকা আদায় করা হচ্ছে বলেও আনেক অভিভাবকরা অভিযোগ করেন। এসব অভিযোগ শিক্ষকরা আমলেই নিচ্ছেন না বলে তারা জানান।

রাজৈর (মাদারীপুর)
মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উৎসব মুখোর পরিবেশে পাঠ্য পুস্তক ও সরকারি রাজৈর গোপালগঞ্জ কে,জে,এস পাইলট মডেল ইনস্টিটিউশন মাঠে বই উৎসবের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে । গতকাল মঙ্গলবার প্রথম দিন,নতুন বছরের ২০১৯ সালের এ দিনেই পালন করা হয় বই উৎসব। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক অফিস সূত্রে জানা যায়, রাজৈরে উৎসবের মধ্য দিয়ে সকালে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের ৭৩,৬৭৬ জন শিক্ষার্থীর হাতে বিনা মূল্যের নতুন বই তুলে দেয়া হয়। সরকারি রাজৈর গোপালগঞ্জ কে জে এস পাইলট মডেল ইনস্টিটউশন সকাল ১১টা বই বিতরণ উৎসবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহানা নাসরিন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাজাহান খান, পৌর মেয়র শামিম নেওয়াজ মুন্সী ও তার সহ-ধর্মিনী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লিতা কুদ্দুস, উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার ননীগোপাল, কে জে এস পাইলট মডেল ইনস্টিটউশনের প্রধান শিক্ষক অলিক কুমার ধর রাজৈর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিন্দ্রনাথ বাড়ৈ ও টেকেরহাট শহীদ সরদার শাজাহান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক মুকলেছুর রহমান প্রমুখ । পরে পৃথক পৃথক ভাবে গোপালগঞ্জ নিউ মডেল সরকারি প্রথকিম বিদ্যারয় রাজৈর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, রাজৈর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, টেকেরহাট শহীদ সরদার শাজাহান গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ,শামচ্ছুর হক মোল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৩৯ নং স্বরমঙ্গল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বই বিতরণ করা হয়। এছাড়াও মাধ্যমিক স্থরের ত্রিশ হাজার শিক্ষার্থীর ও প্রাথমিক স্তরের তেতাল্লিশ হাজার ছয় শত ছিয়াত্তর জন শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয় ।

শিবগঞ্জ (বগুড়া)
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সারা দেশের ন্যায় শিবগঞ্জেও বই বিতরণ ও উৎসব পালন করা হয়। “নতুন বছরের ¯েøাগান নতুন বছরের নতুন দিন নতুন বইয়ে হোক রঙ্গীন”। পহেলা জানুয়ারী সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে পাঠ্য পুস্তক বিতরনের মাধ্যমে বই উৎসব পালন করেন প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টরা। শিবগঞ্জ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নতুন বইয়ের শুভ উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর কবির। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও অত্র বিদ্যালয়ের সভাপতি আজিজুল হক। সকাল ১১ টায় গুজিয়া কনফিডেন্স পাবলিক স্কুলে ২০১৯ ইং সালের বই বিতরণ উৎস ও নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ে প্রায় ৫০০ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বই বিতরণ করেন স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহিনুর ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের উপ পরিচালক ও ইউপি চেয়ারম্যানের পতœী মমতাজ বেগম। শিক্ষকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আব্দুল হান্নান, শরিদ, উজ্জল হোসেন, শাহিন ইসলাম, মামুন হোসেন, রাশেদ ইসলাম, ইমন আহম্মেদ। অত্র বিদ্যালয়ে ২০১২ সাল থেকে জাতীয় পর্যায়ে সকল পরীক্ষায় সাফল্য অর্জন এর পাশাপাশি ২০১৭-১৮ সালে শিবগঞ্জ উপজেলায় শতভাগ গোল্ডে প্লাস ও ট্যানেল্টপুল এবং সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি লাভ করে উপজেলা পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করে। অপর দিকে দুপুর ১২টায় শব্দলদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসাবে বই বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলমগীর কবির। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র তৌহিদুর রহমান মানিক, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মিজানুর রহমান, এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম, শিক্ষকদের মধ্যে রফিকুল ইসলাম মানু, শাহিনুর ইসলাম কামরুজ্জামান, আফজাল হোসেন, এনামুল হক, শহিদুল ইসলাম প্রমূখ।

শেরপুর (বগুড়া)
সারাদেশের ন্যায় নতুন বছরের শুরুতে বগুড়ার শেরপুরে প্রাথমিক, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রায় সাড়ে ৭ লাখ নতুন বই বিতরণ করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় অংশ হিসেবে ১ জানুয়ারী মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামুল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরনের মাধ্যমে বই উৎসব পালন করেন প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টরা। এদিকে বছরের প্রথম দিনেই উপজেলার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই হাতে পেয়ে, তাদের চোখে-মুখে আনন্দের ঢেউ বয়ে যাচ্ছে। উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বই বিতরণ কর্মসুচী অংশ হিসেবে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০টায় উপজেলা সদর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শুভ উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিয়াকত আলী সেখ। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বই বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) আরাফাত হোসেন, শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হুয়ামুন কবীর, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল কাইয়ুম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল ইসলাম, আঃ লীগ নেতা সাইফুল বারী ডাবলু, আলহাজ্ব শাহ জামাল সিরাজী, জেলা পরিষদ সদস্য মোস্তাফিজার রহমান ভুট্টো। অপরদিকে উপজেলার হাপুনিয়া মহাবাগ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করেন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তারিকুল ইসলাম তারেক, এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক দানেসুর রহমান, আব্দূল খালেক প্রমুখ। ও শেরপুর ডিজে উচ্চ বিদ্যালয়ে বই বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর বদরুল ইসলাম পোদ্দার ববি, প্রধান শিক্ষক আখতার উদ্দিন বিপ্লব। উপজেলা শিক্ষা অফিস সুত্রে জানা যায়, উপজেলার ১৩৭টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, কেজি স্কুল ১০৮ সহ মোট ২৫৩ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষার্থীকে ২লাখ ১৬ হাজার, মাধ্যমিক শিক্ষার ক্ষেত্রে ১২৮টি উচ্চ বিদ্যালয়, মাদ্রাসা ও এবতেদায়ী মাদ্রাসার ৪৩ হাজার শিক্ষার্থীদের জন্য ৫লাখ ৯৩ হাজার নতুন বই বিতরণ করা হবে। এরই ধারাবাহিকতায় উপজেলার শেরপুর ডিজে মডেল হাইস্কুল, আনোয়ার সিরাজ স্কুল, শেরপুর শহিদীয়া আলীয়া মাদরাসা, আর রাযী প্রাইভেট দাখিল মাদরাসা, শেরউড ইন্টারন্যাশনাল (প্রাঃ) স্কুল এন্ড কলেজ, শেরপুর পৌরসভা প্রাথমিক বিদ্যালয়, শালফা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, শেরপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সামিট স্কুল এন্ড কলেজ, শালফা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, টাউনকলোনী এজে উচ্চ বিদ্যালয়, ধড়মোকাম উচ্চ বিদ্যালয়, মির্জাপুর ইউসুফ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়, জামুর ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, কেল্লা উচ্চ বিদ্যালয়, তাতড়া উচ্চ বিদ্যালয়, ভীমজানি উচ্চ বিদ্যালয়, ছোনকা উচ্চ বিদ্যালয়, শালফা এসআর চৌধুরী দাখিল মাদ্রাসা, ছোনকা উচ্চ বিদ্যালয়, বিশ্বা উচ্চ বিদ্যালয়, বিশালপুর উচ্চ ও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সরকারী কর্মকর্তা, স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, প্রধান শিক্ষকসহ স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গের উপস্থিতিতে দিনব্যাপী নতুন বই বিতরন করা হয় বলে জানা গেছে।

নেত্রকোনা 
২০১৯ বছর শুরুর প্রথম দিনে গতকাল নতুন বইয়ের গন্ধে মেতেছে জেলা সদরসহ জেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। সকালে জেলা শহরের রাজুর বাজারে বাহিরচাপড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম আশরাফুল আলম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম কামরুল হাসান শাহীন, সদর ইউএনও সুমনা আল মজিদ, জেলা শিক্ষা অফিসার মো. ওয়ালী উল্লাহ, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার খন্দকার মনসুর প্রমূখ। পরে পর্যায়ক্রমে আঞ্জুমান আদর্শ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, নেত্রকোনা উচ্চ বিদ্যালয়, আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সাতপাই মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ে বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হয়। এদিকে জেলা শহরের মোক্তারপাড়ায় হলি চাইল্ড কিন্ডার গার্টেনে শিশু শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই বিতরণ করেন নেত্রকোনা- ২ আসনের এমপি এশরাফ আলী খান খসরূ। এ সময় জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুন্নেছা আশরাফ দিনাসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

কাউনিয়া (রংপুর)
কাউনিয়া উপজেলায় পাঠ্য পুস্তক উৎসবে প্রাথমিক, ইবতেদায়, মাধ্যমিক, ভোকেশনাল ও মাদ্রাসার ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে গতকাল একযোগে বই বিতরণ করা হয়। বই বিতরণ উপলক্ষে আলোচনা সভা শহীদবাগ স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে বিদ্যালয় সভাপতি ও ইউপিচেয়ারম্যান আঃ হান্নান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম নাজিয়া সুলতানা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ জাকির হোসেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার জাকিরুল হাসান। অনান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ তোফাজ্জল হোসেন,প্রধান শিক্ষক বজলুর রহমান। আলোচনা শেষে ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়। অপর দিকে কানিপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই বিতরণ করেন বিদ্যালয়ের সভাপতি মতিবর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম, সহকারী শিক্ষক সুফিয়া বেগম,মাসুদা খাতুন,আঃ রউফ প্রমূখ।

রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ)
সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে নব নির্বাচীত এমপি অধ্যাপক ডাঃ আব্দুল আজিজের সংবর্ধণা সভা ও বই বিতরন উৎসব-২০১৯ পালিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে নিমগাছী উচ্চ বিদ্যালয় ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ চত্বরে অনুষ্ঠিত বই বিতরন উৎসবে সভাপতিত্ব করেন সোনাখাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু হেনা মোঃ মোস্তফা কামাল রিপন। প্রধান অতিথি নবনির্বাচীত এমপি অধ্যাপক ডাঃ আব্দুল আজিজ শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হান্নান খান, সদস্য এ্যাড: ইমরুল হোসেন ইমন তালুকদার, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আব্দুল হাদি আল মাজি জিন্নাহ, সহ-সভাপতি গাজী রেজাউল করিম তালুকদার, আমজাদ হোসেন ছানা, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শরিফুল আলম শরিফ, যুগ্ন সাধারণ সমপাদক ফেরদৌস আলম তালেব, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ঝন্টু, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ হৃদয়, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও ধামাইনগর ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি মাহবুবুল আলম তালুকাদার, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন। অতিথি বৃন্দ কোমল মতি শিশুদের মধ্যে সরকার কর্তৃক প্রদত্ত বিনা মুল্যে বই হাতে তুলে দেন। অপর দিকে সকাল ১১টায় রায়গঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে ধানগড়া ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি গাজী আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে অনুরুপ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বছরের বই তুলেদেন ধানগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মীর ওবায়দুল ইসলাম মাসুম, সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজ উদ্দিন খান, অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ছাইফুল ইসলাম প্রমুখ। নবনির্বাচীত এমপি অধ্যাপক ডাঃ আব্দুল আজিজ, নিমগাছী ইউনিয়ন আ’লীগ, রায়গঞ্জ পৌর আ’লীগ, ধানগড়া ইউনিয়ন আ’লীগ, ব্রহ্মগাছা ইউনিয়নআ’লীগ, পাঙ্গাসী ইউনিয়ন আ’লীগ, নলকা ইউনিয়ন আ’লীগ, সলঙ্গা থানা আ’লীগের উদ্যোগে পৃথক পৃথক সংবর্ধণা সভায় ফুলে ফুলে সংবর্ধীত হন।

রাজারহাট
কুড়গ্রিামরে রাজারহাটে উৎসব মুখর পরবিশেে হয়ছেে বই বতিরণী উৎসব। আজ মঙ্গলবার মডলে সরকারি প্রাথমকি বদ্যিালয়রেে মাঠে গতকাল সকাল ১০টায় প্রাথমকি ও মাধ্যমকি স্তররে শক্ষর্িাথীদরে হাতে বই তুলে দয়িে বনিামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বতিরণী র্কমসূচরি আনুষ্ঠানকিভাবে উদ্বোধন করনে-উপজলো আওয়ামীলীগরে সাধারণ সম্পাদক ও সাবকে উপজলো চয়োরম্যান আলহাজ্ব আবুনুর মোঃ আক্তারুজ্জান ও সভাপত্বতি করনে উপজলো নবর্িাহী অফসিার মুহঃ রাশদেুল হক প্রধান। বই বতিরণী অনুষ্ঠানে উপস্হতি ছলিনে- সরকারি বালকিা উচ্চ বদ্যিালয়রে প্রধান শক্ষিক মোঃহাফজেুর রহমান,মডলে সরকারি প্রাথমকি বদ্যিালয়রের প্রধান শক্ষিক নুর ইসলাম, সরকারি মীর ইসমাইল কলজেরে সহকারি অধ্যাপক সাজদেুল ইসলাম চাঁদ, প্রভাষক হববির রহমান, প্রাথমকি শক্ষিা অফসিার আতকিুর রহমান,জলো পরষিদরে সদস্য আব্দুস সালাম,মৎস্য জীবি লীগরে সভাপতি সোহলে পারভসে প্রমুখ। ২০১৮ সালরে পাঠ্যক্রমে উপজলোয় ১২৩টি প্রাথমকি ও কজেি স্কুলরে প্রায় ২২ হাজার ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে ১লাখ ১০ হাজার ১৯০টি বই বতিরণ করা হয় এবং মাধ্যমকি ও এবতদোয়ী ও কারগিরী ৬২ টি বদ্যিালয়ে ১৫ হাজার ৭শত ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে ৪ লক্ষ ৫০ হাজার ৭শত ২০ টি বই বতিরণ করা হয়।

নওগাঁ
সারা দেশের মত নওগাঁর রাণীনগরে বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়েছে। উপজেলার প্রতিটি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সকাল থেকে নতুন বই নেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।
বই উৎসব উপলক্ষে মঙ্গলবার উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার খাস-পারইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাণীনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাণীনগর সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়সহ সকল বিদ্যালয়ে বই উৎসবের আয়োজন করা হয়। এদিন উপজেলার খাস-পারইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন বই বিতরনের উদ্বোধন করেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো: আনছার আলী। এসময় অন্যান্য অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। নতুন বই পেয়ে শিক্ষার্থীরা উছ¦সিত ও আনন্দিত। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: আতোয়ার রহমান জানান, এবছর উপজেলার মোট ১৩০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৭৯হাজার ৫শত ৬১টি বই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা শেখ মো: আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, উপজেলার মাধ্যমিক ও এফতেদায়ীসহ মোট ৪৪টি মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে ৩লাখ ৬২হাজার বই বিতরন করা হয়েছে।

সাঁথিয়া
গতকাল মঙ্গলবার ১লা জানয়ারী পাবনার সাঁথিয়ায় উৎসব মুখর পরিবেশে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শাখা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বই বিতরণ করেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. শামসুল হক টুকু এমপি। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাঁথিয়া পৌর মেয়র মিরাজল ইসলাম প্রামানিক, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান, আ’লীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ার, সাধারণ সম্পাদক তপন হায়দার সান, আ’লীগ নেতা হাসান আলী খান, রবিউল করিম হিরু, আব্দুল জলিল, অভিভাবক, শিক্ষক, সাংবাদিক ও সুধীজন। এ বছর উপজেলার মাধ্যমিক শাখায় ৪৮ হাজার ৬৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীকে ৬ লাখ ৩৬ হাজার ৮৩০ টি বই এবং প্রাথমিক শাখায় ৫৫ হাজার ছাত্র-ছাত্রীকে ৩ লাখ ২ হাজার ৮৯০টি বই বিতরণ করা হবে।

শাহজাদপুর
‘শিক্ষা নিয়ে গড়ব দেশ’ ‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশ’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ‘বই বিতরণ উৎসব’ চলছে সারাদেশে প্রথম শেণ্রি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে। গতকাল মঙ্গলবার শাহজাদপুর উপজেলার বিভিন্ন উচ্চ বিদ্যালয়, প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা, কিন্ডারগার্টেন, আনন্দ স্কুল ও ব্রাক সেন্টারের শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে শাহজাদপুর ইব্রাহিম পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ইব্রাহিম মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শাহজাদপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে পৃথক ভাবে বই বিতরণ উৎসবের আয়োজন করা হয়। সকাল ১০ টায় ইব্রাহিম মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আয়োজিত বই বিতরণ উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বই বিতরণ উদ্বোধন ঘোষণা করেন, নব-নির্বাচিত এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপন। ্আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হুসেইন খাঁন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ময়নুল ইসলাম সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বই বিতরণ উৎসবের স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফজলুল হক। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সাবেক অধ্যক্ষ এ, এম আব্দুল আজীজ, পৌরসভার মেয়র (দায়িত্ব প্রাপ্ত) নাসির উদ্দিন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল কাদের বিশ্বাস, আওয়ামীলীগ নেতা আমিরুল ইসলাম শাহু প্রমুখ। পরে বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের মাঝে সকল বিষয়ের নতুন বই বিতরণ করা হয়। াশাপাশি শাহজাদপুর ইব্রাহিম পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও শাহজাদপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে উল্লেখিত অতিথিবৃন্দের উপস্থিতিতে বই বিতরণ উৎসবের মধ্যে দিয়ে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ করা হয়। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফজলুল হক জানান, উপজেলার ২শ’ ২৪ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১শ’ ২১ টি কিন্ডারগার্টেন এবং আনন্দ স্কুল ও ব্রাক স্কুল সহ মোট ৪শ’ ৪৪টি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের মাঝে মোট ৩ লাখ ৩৫ হাজার ৯শ’ ৭৩ টি নতুন বই বিতরণ করা হয়েছে। অন্যদিকে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল কাদের বিশ্বাস জানান, উপজেলার ৭০টি হাই স্কুল ও মাদ্রাসার ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের মাঝে সকল বিষয়ে নতুন বই বিতরণ করা হয়েছে।

পঞ্চগড়
পঞ্চগড় প্রতিনিধি: জাতীয় বই উৎসবে পঞ্চগড় জেলায় মাধ্যমিক ও প্রাথমিক পর্যায়ের ২ লাখ ৮৭ হাজার ৭৪৪ জন শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেয়া হয়েছে ২৫ লাখ ২৬ হাজার ৯৭০টি বই। এর মধ্যে মাধ্যমিক স্কুলের ৬ষ্ঠ হতে ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত এবং দাখিল মাদ্রাসার দাখিল ৬ষ্ঠ হতে দাখিল ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত এক লাখ ৩৩ হাজার ১৩২ জন শিক্ষার্থীর হাতে ১৭ লাখ ৯৯ হাজার ৯৮টি বই এবং এবং প্রাথমিক ও ইবতেদায়ীর ১ম শ্রেণি হতে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত এক লাখ ৫৪ হাজার ৬১২ জন শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেয়া হয়েছে ৭ লাখ ২৭ হাজার ৮৭২ টি বই। গতকাল মঙ্গলবার সকালে পঞ্চগড় সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নতুন বই বিতরণ উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন। এসময় জেলা শিক্ষা অফিসার শঙ্কর কুমার ঘোষ, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেখা রানী দেবীসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

শার্শা (যশোর)
“বই হোক মোদের সাথি , জ্ঞানার্জনে গড়বো জাতি “ শিক্ষা নিয়ে গড়বো দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে বছরের প্রথম দিনে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা এবং আনন্দমুখর পরিবেশে নতুন বই বিনামূল্যে বিতরণ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। নতুন বইয়ের জন্য সকাল থেকেই বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পদচারণে মুখর হয়ে ওঠে স্কুল মাঠ । প্রতিবারের মতো এবারও নতুন বইয়ের ঘ্রাণ নেওয়ার জন্য মুখিয়ে ছিল শিক্ষার্থীরা। নতুন বই হাতে পেয়ে আনন্দে মাতোয়ারা বিদ্যালয়ের ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা। ১ জানুয়ারী মঙ্গলবার সকাল ১০টার সময় সারা বাংলাদেশে ঢাকার সাথে এক যোগে পালিত হলো জাতীয় বই উৎসব। তারই ধারাবাহিকতায় যশোরের শার্শা উপজেলায় এক মনোমুগ্ধকর পরিবেশের মধ্যদিয়ে নতুন বইয়ের স্বাধ নিলো ক্ষুদে শিক্ষার্থী সহ মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষার্থরা। বই হাতে আনন্দ উল্লাসে ঘরে ফেরা যেন সে এক অভাবনীয় দূর্লভ পরিবেশের সৃষ্টি। মঙ্গলবার সকাল ১০টার সময় ৮৫ যশোর-১ এর মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শেখ আফিল উদ্দিন কোমলমতি ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের হাতে ২০১৯ সালের নতুন বছরের বই তুলে দিয়ে বই উৎসবের সুভ সুচনা করেণ। এর পর থেকেই এই উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একযোগে বই বিতরণী শুরু হয়। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সিরাজুল হক মঞ্জু, নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
রাকিব

Comments are closed.