rockland bd

সাঁথিয়ায় বিএনপি নেতার বাড়িতে হামলা, ভাংচুর

0

সাঁথিয়া(পাবনা)প্রতিনিধি,
সোমবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
পাবনার সাঁথিয়া উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক শামসুর রহমানের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করার অভিযোগ করা হয়েছে। এছাড়া পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বিএনপি’র ১৪ নেতা কর্মীকে আটক করেছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে নাশকতা মামলা রয়েছে।
বিএনপি নেতা শামসুলের একজন ঘনিষ্ট স্বজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, রবিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে মুখোশ পরিহিত ২০/২৫জন দুর্বৃত্ত উপজেলার করমজা গ্রামে বিএনপি নেতা শামসুলের বাড়িতে ঢুকে তাকে ডাকাডাকি করে। এ সময় তারা একটি মোটর সাইকেল ও চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে চলে যায়।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রবিবার রাতে সাঁথিয়া থানা পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বিএনপি’র ১৪ নেতা কর্মীকে আটক করে। আটককৃতরা হলো- উপজেলার ছাতক বরাট গ্রামের মৃত জুলমত আলীর ছেলে আলমাস (৫৫), মরিচপুরান গ্রামের মানিক হোসেন (৪২), কাশিনাথপুরের আলহাজ্ব আব্দুল বারী, কাবারিকোলার বরকত হোসেন শামীম, ছাতক বরাটের শিহাব হোসেন, আকমান হোসেন, আরমান হোসেন,রুহুল আমীন, জসিম উদ্দিন, ইয়াকুব আলী, শাহীন হোসেন,সোহাগ খান, সুজানগরের আহম্মদপুরের সাদ্দাম হোসেন ও আত্রাইশুকা গ্রামের সিদ্দিকুর রহমান। আটককৃতরা সকলেই বিএনপি’র কর্মী।
তাদের বিরুদ্ধে নাশকতা, বিস্ফোরক,আইনে থানায় বিভিন্ন মামলা ছিল। ১৪ আসামীর মধ্যে আলমাসকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় রেখে বাঁকী ১৩ জনকে আজ সোমবার দুপুরে পাবনা আদালতে প্রেরণ করা হয়। আলমাসের বিরুদ্ধে থানায় ও আদালতে হত্যা, ধর্ষণ, ডাকাতি ও নাশকতাসহ প্রায় এক ডজন মামলা রয়েছে।
সাঁথিয়া থানার ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, আটকৃতরা সবাই বিএনপি’র কর্মী। তাদেরকে নাশকতার মামলায় আটক করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আব্দুদ দাইন/আর এইচ

Comments are closed.