rockland bd

মাঠে নেই বিএনপি, প্রচারে সরগরম আওয়ামী লীগ

0

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি
সোমাবর, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনে পোষ্টার, ফেস্টুন, ব্যানার, নির্বাচনী ক্যাম্প, পথসভা, জনসভা সবকিছুতেই দাপুটে অবস্থানে রয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী সংসদ সদস্য অধ্যাপক মো. আব্দুল কুদ্দুস। এ আসনের কোথাও পোষ্টার নেই বিএনপির। বিএনপির অভিযোগ আওয়ামী লীগের হামলা আর পুলিশি তৎপরতার করণে তারা কোনো কর্মসূচি চালাতে পারছে না। অবশ্য এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে আওয়ামী লীগ।
সরেজমিন দেখা গেছে, নাটোর-৪ আসনের বিএনপি প্রার্থী আব্দুল আজিজের বাড়িতে সুনসান নিরবতা। দেখা নেই তার নেতাকর্মিদের সাথে। পুরুষ সদস্যরা রাতে বাড়িতে থাকেন না। তার বাড়ির সামনে রাস্তায় শোভা পাচ্ছে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পোষ্টার।
এ বিষয়ে বিএনপি প্রার্থী আব্দুল আজিজ বলেন, আমার নেতাকর্মিরা রাস্তায় বের হতে পারছেনা। অস্ত্রধারীদের মহড়ার কারণে নেতাকর্মিরা আমার সাথে দেখা করতে পারছে না। তাছাড়া নেতাকর্মিদের বাড়িতে র‌্যাব পুলিশ সদস্যরা হানা দিচ্ছে। প্রচারণা চালাতে পারছিনা। এখানে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বলতে কিছু নেই।
অন্যদিকে গুরুদাসপুর ও বড়াইগ্রাম উপজেলার রুহাই থেকে রাজাপুর সর্বত্র নৌকার পোষ্টারে ছেয়ে গেছে। সব ধরণের প্রচারে সরব আছে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুস। তার নির্বাচনী কার্যালয়, বাসাবাড়ি, সড়ক, মন্দির সবকিছুতেই সরগরম। চলছে নির্বাচনী জনসভাও। এতে বিভিন্ন শোবিজের তারকারা মিউজিকের তালে গান গেয়ে নৌকায় ভোট চাচ্ছেন।
গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. আনিসুর রহমান প্রায় তিন মাস রোগে ভোগার পর আবারও নৌকার প্রচারণায় ব্যাপকভাবে উদ্দোমী হয়েছেন। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. জাহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম বিপ্লব এবং বিশেষ করে আব্দুল কুদ্দুস তনয়া কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের সহসভাপতি অ্যাড. কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে প্রাণান্তকর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
নাটোর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, আমাদের প্রচারণা করতে দেওয়া হচ্ছে না। পোষ্টার লাগাতে দেওয়া হয়নি। পুলিশ বাড়ি পর্যন্ত গিয়ে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। এভাবে নির্বাচন করা যায়না। সত্যিকারের সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জিততে পারবে না জেনেই বিএনপির ওপর নানাভাবে দমন পীড়ন চালাচ্ছে।
এসব অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নৌকার প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুস বলেন, আমি ব্রিজ, কালভার্ট, স্কুল, কলেজের অবকাঠামো, যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ সর্বক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। সারাদেশের উন্নয়ন সূচকে আমার নির্বাচনী এলাকা রয়েছে সপ্তম সূচকে। আমার উন্নয়নের অংশীদার জনগণই আমার বড় সম্পদ। দেশের অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে এবার বিপুল ভোটের ব্যবধানে নৌকাকে বিজয়ী করবো ইনশাল্লাহ।
এ ব্যাপারে গুরুদাসপুরের সহকারি রিটার্নিং অফিসার ইউএনও মোহাম্মদ মনির হোসেন বলেন, গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রামে সুন্দর নির্বাচনী পরিবেশ বিরাজ করছে। কোনো প্রার্থীর অভিযোগ আমরা পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
মো. আখলাকুজ্জামান/আর বি

Comments are closed.