rockland bd

সেনাবাহিনী দিয়ে ভোটগ্রহণ, গণনা ও ফল প্রকাশের নির্দেশনা চেয়ে রিট

0

সেনাবাহিনী দিয়ে ভোটগ্রহণ, গণনা ও ফল প্রকাশের নির্দেশনা চেয়ে রিট

ডেস্ক প্রতিবেদন, ঢাকা
রবিবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সেনাবাহিনীর মাধ্যমে ভোটগ্রহণ, গণনা ও ফল প্রকাশের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।
আজ রবিবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও ঢাকা-৮ আসনের লাঙ্গলের প্রার্থী ড. ইউনুছ আলী আকন্দ হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি দায়ের করেন।
তিনি বলেন, ‘সোমবার বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিট আবেদনটি শুনানির জন্য উপস্থাপন করা হবে।’
রিটে আইন সচিব, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, ১৪ দলের পক্ষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, ২০ দলের পক্ষে বিএনপি মহাসচিব, মন্ত্রীপরিষদ সচিব, রাশেদ খান মেনন, মির্জা আব্বাস, স্বরাষ্ট্র সচিবসহ ১০ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।
জানা গেছে, রিটে নির্বাচন কমিশনের নিজস্ব কর্মকর্তা কর্মচারীদের মাধ্যমে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনায় ব্যর্থতা কেন অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না এবং সারাদেশের সকল কেন্দ্রে সেনাবাহিনী দিয়ে ভোটগ্রহণ, গণনা ও ফল প্রকাশের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে।
রিটে নির্বাচনে জোট গঠন করে একদলের প্রার্থী অন্য দলের সভাপতির ছবি এবং একদলের প্রার্থী অন্য দলের প্রতীকে নির্বাচন করা কেন অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না তা জানতেও রুল জারির আবেদন জানানো হয়েছে। রুল জারির পর তা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত এক দলের প্রার্থী অন্য দলের প্রতীক ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে।
পাশাপাশি রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত দরখাস্তকারীদের গ্রেপ্তার বা হয়রানি না করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।
এছাড়া রিটকারী ও তার পরিবারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে একজন গানম্যানসহ প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েনের নির্দেশ চাওয়া হয়েছে। রিটে ২০ দল বা ১৪ দল নামে জোট গঠন করে নির্বাচন করার ওপর নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে।
রিট আবেদনে বলা হয়, ‘নির্বাচন কমিশন তার নিজস্ব কর্মকর্তাদের দিয়ে নির্বাচন করবে, কিন্তু তা না করে প্রশাসনকে দিয়ে নির্বাচন করছে-এটা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।’
ইউনুছ আলী আকন্দ বলেন, ‘সেনাবাহিনীর মাধ্যমে ভোট করলে তা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে বলে আমি মনে করি। একারণে সশস্ত্র বাহিনী দিয়ে ভোট করার নির্দেশনা চেয়ে রিট আবেদনটি করা হয়েছে।’ সূত্র: ইউএনবি

আর এইচ

Comments are closed.