rockland bd

সাপাহারে পুলিশের গ্রেফতার আতংকে ঐক্যফ্রন্ট নেতাকর্মীরা

0

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি
বৃহস্পতিবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে নওগাঁ জেলার সাপাহার উপজেলায় বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতাকর্মীদের মাঝে পুলিশী গ্রেফতার আতংক বিরাজ করছে। ঐক্যফ্রন্ট তথা বিএনপির বড় বড় নেতাকর্মীরা এখন কৌশলে গোপনে ভোট যুদ্ধে ভোট করে চলেছে বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে ।
জানাগেছে নির্বাচনী তফশীল ঘোষনার পর জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোট প্রার্থীর ধানের শীষ প্রতীকের পক্ষে নেতাকর্মীগণ স্বাভাবিক ভাবে কাজ করতে শুরু করলে, স্থানীয় থানায় দায়েরকৃত একটি নাশকতার মামলায় অজ্ঞাত নামা পলাতক আসামী হিসেবে ও বিশেষ ক্ষমতা আইন মামলায় বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতাকর্মীদের আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করতে শুরু করে। বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা কর্মীদের নির্বাচনী মাঠ ফাঁকা করার জন্য পুলিশ এই গ্রেফতার কার্যক্রম অব্যাহত ভাবে চালিয়ে আসছে বলে ভুক্তভোগীদের দাবী।
এ পর্যন্ত পুলিশ গোয়ালা ইউনিয়ন ছাত্রদল সভাপতি মতিউর রহমান, সদর ইউনিয়ন সাবেক যুগ্ন সম্পাদক মোক্তাহারু ইসলাম, উপজেলা যুবদল সভাপতি শফিকুল ইসলাম,উপজেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আনছারী,পাতাড়ী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি তরিকুল ইসলাম সহ সর্ব শেষ গত ১৮ ডিসেম্বর মঙ্গলবার এশার নামাজ পড়ার জন্য হাসপাতাল মসজিদে গেলে হাসপাতাল গেট থেকে সাপাহার থানা পুলিশ উপজেলা বিএনপির সংগ্রামী সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম কে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।
নওগাঁ-১ আসনের প্রার্থী তিন বারের সফল সংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ ছালেক চৌধুরী, সাপাহার উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম চৌধুরী যুগ্ন-সম্পাদক আব্দুর রহমান কল্লোল বলেন বিএনপি এতো বড় দল যেখানে এতো নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে তারপরও নেতাকর্মীর অভাব নেই, তবে সাময়িক বিভ্রান্তের মধ্যে পড়তে হয়েছে জনগণ সব দেখতে পারতেছে জনগণ ৩০ তারিখ ভোট দিয়ে বুঝিয়ে দিবে বিএনপির জনপ্রিয়তা কত এই সাপাহারের মাটিতে। সামনে বিএনপির জন্য সুদিন।
আরাফাত হোসেন সাপাহার/আর বি

Comments are closed.