rockland bd

নাটোরে মাঠে নেই দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিতরা

0

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি,
বুধবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনের দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীরা এখনও নির্বাচনী মাঠে নেই। ক্ষোভে-অভিমানে নির্বাচনের প্রচারণা থেকে দূরে সরে গেছেন আওয়ামীলীগ ও বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত দেড় ডজন নেতা। মনোনয়ন না পেয়ে দলীয় কর্মকান্ড থেকেও নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন কেউ কেউ ।
তাদের মান ভাঙ্গাতে কেন্দ্রীয় নেতাদের কোনো উদ্যোগ বা সমন্বয় লক্ষ্য করা যায়নি। আবার আওয়ামীলীগ ও বিএনপির দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্ত প্রার্থীদের পক্ষ থেকেও এ ব্যাপারে কোনো প্রদক্ষেপ নেয়ার খবর পাওয়া যায়নি।
দলীয় সুত্রে জানা গেছে, এ আসনের আওয়ামীলীগের মনোনয়ন চেয়ে আবেদন করেছিলেন ১৬ জন নেতা। অন্যদিকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৮ জন। আওয়ামীলীগের মধ্যে নৌকার টিকিট পান বর্তমান সংসদ সদস্য অধ্যাপক মো. আব্দুল কুদ্দুস। এতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারী ১৫ নেতাই অভিমান করে নিষ্ক্রিয় আছেন।
মনোনয়ন বঞ্চিতদের মধ্যে গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মো. শাহনেওয়াজ আলী, আওয়ামীলীগ নেতা বড়াইগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, প্রবাসী আওয়ামীলীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. মহসিন আলী, আহম্মেদ আলী উল্লেখযোগ্য। তবে শাহনেওয়াজ আলী দাবী করেন, তিনি নৌকার পক্ষেই কাজ করে যাচ্ছেন।
এ আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৮ জন। এরমধ্যে গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগকারী উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. আব্দুল আজিজ মনোনয়ন পেয়েছেন। এক্ষেত্রে ধানের শীষের পক্ষেও মনোনয়ন বঞ্চিত কোনো নেতাকে নির্বাচনী কর্মকান্ডে দেখা যায়নি।
এ ব্যাপারে বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত ড্যামি প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক মোজাম্মেল হকের মুঠোফোনে বার বার যোগাযোগ করেও বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
বিএনপি প্রার্থী মো. আব্দুল আজিজ বলেন, দলের সবাই এখন ধানের শীষকে বিজয়ী করতে একাট্টা। নির্বাচনী কর্মকান্ডে বাধা না থাকলে এবং অবাধ সুষ্ঠু ভোট হলে বিএনপিই জিতবে।
নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও দলীয় প্রার্থী অধ্যাপক মো. আব্দুল কুদ্দুস মনে করেন, দলে তার সাথে কারো কোনো কোন্দল নেই। কেউ করলে ভিন্ন কথা। তার দাবী এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। জনগণই তার সম্পদ। জয়ের ব্যাপারে তিনি শতভাগ আশাবাদী।
নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম শিমুল এমপি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সবাই নৌকার পক্ষে কাজ করছেন। যারা এখনো শুরু করেননি আজকালের মধ্যেই প্রচারনায় নামবেন।

মো. আখলাকুজ্জামান/আর এইচ

Comments are closed.