rockland bd

তৃণমূল আ.লীগ-নেতাকর্মীদের পছন্দ দোলন

0

নিজেস্ব প্রতিবেদক
বৃহস্পতিবার, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর:
আসনে নৌকার জয় অক্ষুন্ন রাখতে মনোনয়নকে ফ্যাক্টর হিসেবে দেখছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।
তারা বলছেন, বিএনপি নির্বাচনে আসছে। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এই নির্বাচনে নৌকার জয় নিশ্চিত করতে তৃণমূলে গ্রহণযোগ্য ও জনপ্রিয় ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিতে হবে। এই বিচারে কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আরিফুর রহমান দোলনকে তারা এগিয়ে রেখেছেন। আওয়ামী লীগের দুর্গখ্যাত আলফাডাঙ্গার সন্তান দোলনকে নৌকার প্রার্থী করা হলে জয় সুনিশ্চিত বলে মনে করেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা।
আলফাডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আহাদুল হাসান আহাদ বলেন, আরিফুর রহমান দোলন কর্মী বান্ধব নেতা। তিন উপজেলার ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের বড় অংশ দোলনের সঙ্গে আছেন। এবারের সংসদ নির্বাচনে তারা দোলনকে প্রার্থী হিসেবে চান।
আলফাডাঙ্গার বুড়াইচ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আরিফুর রহমান দোলন সদালাপী, বিনয়ী, ধৈর্য্যশীল। তিনি সহজে মানুষের সঙ্গে মিশতে পারেন। সাধারণ মানুষকে দ্রুত কাছে টানতে পারেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি তিন উপজেলায় কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের ব্যানারে সমাজকল্যাণমূলক কাজ করে যাচ্ছেন। পারিবারিকভাবেই তাদের সমাজকল্যাণের দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে।
বোয়ালমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও ময়না ইউনিয়নের চেয়ারম্যানে নাসির মো. সেলিম বলেন, রাজনৈতিক কর্মকান্ডের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরণের সামাজিক কাজের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের মন জয় করেছেন দোলন। উপজেলাতে তার নিজস্ব কর্মী বাহিনী রয়েছে। যারা বিভিন্ন জায়গায় গণসংযোগের মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন কাজের প্রচার করছে। তাদের মধ্যে তিনি অন্যতম। সচেতন মহল ও তৃণমুল মনে করে তাকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দেওয়া হলে তিনি সহজে বিজয়ী হতে পারবেন। মধুখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি একরাম হোসেন তপন বলেন, ফরিদপুর-১ আসনে নতুন ভোটারের সংখ্যা এক লাখের বেশি। এই আসনের জয়-পরাজয় নির্ধারণে নতুন এই ভোটারদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকবে। দোলন নতুন ভোটারদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয়। তরুণ নেতৃত্ব দোলনের প্রতি নতুন ভোটারদের ব্যাপক সমর্থন রয়েছে।
বোয়ালমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান সদস্য গোলাম সরোয়ার মৃধা বলেন, ‘বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আরিফুর রহমান দোলনের সুসম্পর্ক রয়েছে। তিনি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান মসজিদ, মাদরাসাসহ ধর্মপ্রাণ মানুষের সঙ্গে নিবিড় যোগাযোগ-সম্পর্ক রক্ষা করে চলেন। ভোটাররা তাকে পছন্দ করে।’
মধুখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও মেগচামী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান খুরশিদুল আলম বলেন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও যোগাযোগ ব্যবস্থার মতো জনগুরুত্বপূর্ণ খাতে নিরলসভাবে কাজ করছেন আরিফুর রহমান দোলন। তিন উপজেলার রাস্তাঘাট ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগে গত নয় বছর ধরে দৌড়ঝাঁপ করছেন এবং সফল হয়েছেন। আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারীর বিভিন্ন এলাকায় রাস্তাঘাট তৈরি, সংস্কার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, কবরস্থান, ঈদগাহ, খেলার মাঠের উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করেছেন। ব্যক্তিগত উদ্যোগেও মানুষের ও এলাকার উন্নয়নে কাজ করেছেন। এখনো করছেন।

কে এম রুবেল/এবিএস

Comments are closed.