rockland bd

আলোচনায় না হলে জনগণকে নিয়ে দাবি আদায়, কাল রোডমার্চ

0

আলোচনায় না হলে জনগণকে নিয়ে দাবি আদায়, কাল রোডমার্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর-
জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহবায়ক ড. কামাল হোসেন বলেছেন, তারা আলোচনার মাধ্যমে বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতির সমাধান চান। বল এখন সরকারের কোর্টে।
আজ বুধবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দলীয় জোটের সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের তিন ঘণ্টাব্যাপী সংলাপ শেষে প্রেস ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা বলেন।
ড. কামাল বলেন, ‘আমরা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান চাই…. আমরা শান্তি ও স্থিতিশীলতা চাই।’
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আমরা সীমিত মাত্রায় আরও আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছি এবং সরকার বলেছে যে সংলাপ চলতে পারে।’
তিনি জোর দিয়ে বলেন, ‘সরকার দাবি না মানলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমরা দাবি আদায় করব। ’
নির্বাচনকালীন সরকার, সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ ৭ দফা নিয়ে আরও আলোচনা চায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।
আজ বুধবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় দফা সংলাপে এমন প্রস্তাব দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির নেতারা।
এদিকে ঐক্যফ্রন্টের এই প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে সংলাপ শেষে ওবায়দুল কাদেরও বলেছেন, ভবিষ্যতে অনানুষ্ঠানিক আলোচনা হতে পারে।
সংলাপ শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আমরা আন্দোলনে আছি। কাল রাজশাহীতে সমাবেশ হবে। সংলাপ আমাদের আন্দোলনেরই অংশ। যে সমস্যা তৈরি হয়েছে, তা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান হওয়া উচিত। সরকার যদি তা না চায়, তার দায়ভার তাদের। আমরা আমাদের দাবিগুলো নিয়ে জনগণের কাছে যাচ্ছি।’
আজ বুধবার সংলাপ শেষে গণভবন থেকে ফিরে ড. কামাল হোসেনের বেইলি রোডের বাসায় সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।
আজ সকাল ১১টা থেকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও ১৪ দলের নেতাদের সঙ্গে দ্বিতীয় দফা সংলাপ করেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। ওই সংলাপে নেতৃত্ব দেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

আর এইচ

Comments are closed.