rockland bd

বাঙ্গালী পরিচয়ে আমরা মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চাই: সংস্কৃতিমন্ত্রী

0

বাঙ্গালী পরিচয়ে আমরা মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চাই: সংস্কৃতিমন্ত্রী

নীলফামারী প্রতিনিধি, বাংলাটুডে টোয়েন্টিফোর-
কলেজের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, ,‘নিজেদেরকে ক্লাশের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখলে হবে না। পৃথিবীর যেমন ইতিহাস আছে, দেশের তেমন ইতিহাস আছে। নিজের শহরেরও ইতিহাস আছে। এসব আমাদেরকে জানতে হবে।
আমাদেরকে এমন একটি দেশ প্রতিষ্ঠা করতে হবে, যেখানে দানব থাকবে না, শুধু মানব থাকবে।’
আজ রবিবার বিকালে নীলফামারী সরকারি কলেজ চত্ত্বরের বধ্য ভূমিতে ‘মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ’ নির্মান কাজের ভিত্তি স্থাপন শেষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী নূর আরো বলেন, ‘বাংলাদেশটা ফুলের বাগানের মত সুন্দর। একটা বাগানে যেমন অনেক রকম ফুল থাকে, সুগন্ধের ফুল থাকলে বাগানটা সুন্দর হয়, বাংলাদেশটা ঠিক সেরকমই সুন্দর।
বাঙালীর মধ্যে মুসলীম আছে, হিন্দু আছে, বৌদ্ধ আছে, খৃষ্টান আছে, সমতলের মানুষ আছে, পাহাড়ের মানুষ আছে, এখানে নানা রকম মানুষ আছে। আমরা হাজার বছর ধরে এক সঙ্গে বসবাস করছি, এটাই আমাদের সৌন্দর্য্য।’
তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রথম পরিচয় আমরা বাঙ্গালী। এই পরিচয় দিয়েই আমরা মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চাই।
এটার উপরই যখন ১৯৫২ সালে আমাদের ভাষার ওপর আঘাত এসেছিল, তখন আমরা রুখে দাঁড়ালাম। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা দেশটা স্বাধীন করলাম। সারা পৃথিবীতে আজকে আমরা বাংলাদেশ নামে পরিচিত, আমরা বাঙ্গালী নামে পরিচিত।’
নীলফামারী সরকারি কলেজের ছাত্র ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। কলেজের স্মৃতিচারণের কথায় তিনি বলেন,‘আমরা ১৯৬৫ সালে প্রথম শহীদ মিনার নির্মাণ করেছিলাম কলেজে, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি খান সেনারা সেটি ভেঙে দিয়েছিল। কারণ আমাদের বাঙ্গালীত্বের প্রতি তাদের রাগ ছিল। আমরা যে নিজেদের বাঙ্গালী বলে পরিচয় দিতাম সেটা তাদের পছন্দ ছিল না।’
কলেজের অধ্যক্ষ দেবীপ্রসাদ রায়ের সভাপতিত্বে অন্যান্যের বক্তৃতা দেন জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুজার রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমা-ার ফজলুল হক, ডেপুটি কমা-ার কান্তি ভুষণ কু-ু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মনিরুল হাসান শাহ্ প্রমুখ।
এর আগে দুপুরে মন্ত্রী সদর উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে চার হাজার ১৫০ কৃষকের মাঝে কৃষি প্রণোদনার বীজ ও সার বিতরণ করেন।

বিজয় চক্রবর্তী কাজল/আর এইচ

Comments are closed.