rockland bd

ট্রাম্পের জয়ে মর্মাহত বিশ্ব: রয়টার্সের প্রতিবেদন

0

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৯ নভেম্বর ২০১৬, বুধবার :
এক অনাকাঙ্ক্ষিত জয় দিয়েই যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। জয়ের খুব কাছে থেকে ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের পরাজয়ে মার্কিন ভোটারদের মধ্যে যেমন আশ্চর্য বিরাজ করছে তেমনি বিশ্ব নেতৃবৃন্দের মধ্যেও দেখা দিয়েছে হতাশা।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স তাদের এক প্রতিবেদনে তুলে ধরেছেন এশিয়া থেকে ইউরোপের বেশ কিছু রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের প্রতিক্রিয়া। তাতে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের মর্মাহত হওয়ার চিত্রই ফুটে উঠেছে।
জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী উরসুলা ভন দা লিয়েন, যিনি চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেলের ঘনিষ্ঠ মিত্র বলে পরিচিতি, তিনি তার প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্পের জয়ে ‘মারাত্মক মর্মাহত’ বলে উল্লেখ করেছেন।
ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাঁ-মার্ক আইরাউল্ট ট্রাম্পের সাথে কাজ করার কথা বললেও মন্তব্য করেছেন ট্রাম্পের ব্যক্তিত্ব প্রশ্ন বাড়িয়েছে। তবে তিনি ট্রাম্পের পররাষ্ট্রনীতি নিয়ে এখনো নিশ্চিত নন। জলবায়ু পরিবর্তন, পশ্চিমা নিউক্লিয়ার চুক্তি, ইরান ও সিরিয়া যুদ্ধ নিয়ে ট্রাম্পের নীতি কি হবে তা নিয়ে তিনি এখনো অনিশ্চিত।
সুইডেনের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল বিল্ডট টুইটারে মন্তব্য করেছেন, ‘এটা হবে পশ্চিমের জন্য এক বছরে দ্বিতীয় দুর্যোগের ঘটনা’। এ প্রসঙ্গে তিনি ইউরোপ থেকে ব্রিটেনের বেরিয়া যাওয়া প্রসঙ্গটি বোঝাতে চেয়েছেন।
এদিকে অস্ট্রেলিয়া থেকে ফ্রান্সের ডানপন্থী নেতারা ট্রাম্পের এ জয়ে উল্লাস প্রকাশ করেছেন। তারা এতে দেশগুলোতে রাজনৈতিক এস্টাবলিশমেন্ট দেখছেন।
ফ্রান্স ন্যাশনাল ফ্রন্টের সিনিয়র নেতা ফ্লোরিয়ান ফিলিপট টুইটারে মন্তব্য করেছেন, ‘তাদের দুনিয়া পড়ে যাচ্ছে, আর আমরা গড়ছি।’ দলটির প্রতিষ্ঠাতা জাঁ মেরি লি পেন ও তার পিতা মেরিন বলেছেন, ‘আজ আমেরিকার, কাল ফ্রান্সের।’
বিখ্যাত ইতিহাসবিদ শিমন শামা ট্রাম্পের জয়কে ‘সত্যি সত্যি ভয়ানক প্রত্যাশা’ বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বিবিসিকে বলেছেন, এতে ন্যাটো বিপদে পড়বে। ২০ মিলিয়ন লোক তাদের স্বাস্থ্য বীমা হারাবে, জলবায়ু নীতি পরিবর্তিত হয়ে যাবে, ব্যাংক নীতিমালাও নিয়ন্ত্রিত হবে।

Comments are closed.