rockland bd

সরকার খালেদাকে কারাগারে ‘হত্যার চেষ্টা’ চালাচ্ছে, অভিযোগ বিএনপির

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা


সরকার খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় কারাগারে আটকে রেখে ‘হত্যার চেষ্টা’ চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।
দলের চেয়ারপার্সনের স্বাস্থ্যের অবস্থা নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘গতকার বৃহস্পতিবার পরিবারের সদস্যরা আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে কারাগারে গিয়েছিলেন। তারা এসে খালেদার স্বাস্থ্যের যে বর্ণনা দিয়েছেন, তাতে আমরা কেবল উদ্বিগ্নই নয়, হতবাক ও বিস্মিত।’
শুক্রবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন, গুরুতর অসুস্থ সত্ত্বেও খালেদার চিকিৎসার বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।
রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে খালেদা জিয়াকে মিথ্যা সাজানো মামলায় শাস্তি দিয়ে কারাগারে বেআইনীভাবে আটক রেখে ‘হত্যা করার হীন প্রচেষ্টা’ চালাচ্ছে সরকার।
এই পরিস্থিতিতে ফখরুল বলেন, তাদের দলের নেতারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়ে খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করা অনুমতি চাইবেন।
ফখরুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকার এতটাই নিচে নেমে গেছে যে, একজন মারাত্মক অসুস্থ সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে চিকিৎসার কোনো সুযোগ দিচ্ছে না।
অথচ চিকিৎসা পাওয়া তাঁর সাংবিধানিক অধিকার। তিনি বলেন, গণবিরোধী সরকার নিশ্চিত হয়েছে যে, খালেদা জিয়া মুক্ত হলে তাদের রাজনৈতিক অস্তিত্ব বিপন্ন হবে এবং আগামী নির্বাচনে তাদের ভরাডুবি হতে বাধ্য।
এটি এখন শুধু বিএনপির কথা নয়, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের সাবেক রাষ্ট্রদূত পিনাক ভট্টাচার্য সম্প্রতি তাঁর লেখায় এ কথা বলেছেন।
অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের লজ্জাজনক পরাজয় হবে দাবি করে ফখরুল ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়া যেন নির্বাচনে নেতৃত্ব দিতে না পারেন এবং জনগণ যেন তাদের পছন্দমতো প্রার্থীকে ভোট দিতে না পারে, এ জন্যই সরকার তাঁর চিকিৎসার কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে বেআইনিভাবে সাজা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। তিনি বলেন, সরকার তাঁকে শাস্তি দেওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে।
আইন বহির্ভূতভাবে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আনা এই মামলায় উচ্চতর আদালত জামিন দেওয়ার পরও তাঁকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে না। সম্পূর্ণ মিথ্যা, সন্ত্রাসী ও নাশকতার মামলায় তাঁকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না। যদিও এসব মামলায় অন্যান্য অভিযুক্তদের সবাইকে জামিন দেওয়া হয়েছে।
খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। না হলে সকল দায়দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে।
বিশেষ করে সংবিধান লঙ্ঘন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে সরকারকে অভিযুক্ত হতে হবে। কারা কর্তৃপক্ষ প্রজাতন্ত্রের কর্তৃপক্ষ, তাদের দায়িত্ব সুস্পষ্টভাবে আইন ও বিধান দ্বারা পরিচালিত। এ দায় তাদেরও বহন করতে হবে।
অবিলম্বে বিশেষায়িত হাসপাতালে খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে এবং তাকে কারাগার থেকে মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বিএনপি নেতা।

বাংলাটুডে২৪/আর এইচ

Comments are closed.