rockland bd

পূজায় ভারতে কমেছে সোনার দাম!

0

বিটি২৪ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক

ভারতে বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গে দুর্গা পূজা মানে বিশেষ কিছু। বছরের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব হিসেবে একে পালন করেন পশ্চিমবঙ্গের বাঙালি হিন্দুরা। এসময় সাজগোজ-কাপড়চোপড় কেনার সঙ্গে গয়না বানানোরও ধুম পড়ে যায়। আর এই সময়ে কিনা গতবছরের তুলনায় সোনার দাম কমেছে সর্বোচ্চ দামের তুলনায় ১০ হাজার টাকা!

ভারতে এখন ভরির বদলে গ্রামেই সোনার হিসেব বেশি হয়। আনন্দবাজার পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ জানাচ্ছে, ২০২০ সালে এই সময়ে ভারতে সর্বোচ্চ উৎকৃষ্ট যে সোনা অর্থাৎ ২৪ ক্যারাটের যে সোনা তার প্রতি ১০ গ্রামের দাম সর্বোচ্চ উঠেছিল ৫৭ হাজার টাকার উপরে। আর গতকাল সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) ওই মানের ওই পরিমাণ সোনার দাম হয়েছে ৪৮ হাজার ৪৫০ টাকা। ফলে প্রতি ১০ গ্রামে সোনার দাম কমেছে প্রায় ১০ হাজার টাকার মতো।

তবে বাংলাদেশে সোনা ভরিতে বিক্রি হয়। তাই ১০ গ্রাম সোনার সঙ্গে দামের তুলনা হওয়ায় ভরিতে দাম কম না বেশি হলো তা নিয়ে খটকা ঠেকছে অনেকের। ভরি হচ্ছে সোনা পরিমাপের পুরনো একক। আর সব ধরনের কঠিন বস্তু পরিমাপের আধুনিক একক হচ্ছে গ্রাম। প্রতি ১৬ আনায় হয় এক ভরি। এ হিসেবটাকে ভরিতে রূপান্তর করলে বলা যায়, আর এক ভরি সোনায় হয় প্রায় ১১.৬৬৪ গ্রাম। আবার ১ গ্রামে হয় = ১.৩৭আনা । এই হিসেবে ১০ গ্রাম সোনায় একটি দশমিক যুক্ত সংখ্যা আসবে হিসেবে যা মনে রাখার জন্য সহজ নয়। প্রতি ১০ গ্রাম সোনায় হয় ১৩.৭১৭ আনা। আবার উল্টো করে পুরনো এককে ভাবলে ১৪ ভরি সোনায় হয় ১০.২০৬ গ্রাম। তবে যেহেতু মেট্রিক পদ্ধতিতেই এখন বিশ্বজুড়ে দাম-দর হয় ও পরিমাপ করা হয় সে হিসেবে এক কেজির নিম্নতর দশক হিসেবে ১০ গ্রামকে স্ট্যান্ডার্ড হিসেবে এখন বিবেচনা করা হয় গয়না বানানোর দোকানে। মোট কথা ১০ গ্রাম সোনা হচ্ছে ১৪ আনা সোনা থেকে সামান্য কম। আর এক ভরিতে থেকে ১.৬৬৪ গ্রাম কম।

দেশটিতে ২৪ ক্যারাটের সোনার পাশাপাশি অন্য সব গয়নার সোনার দামও কমেছে। ২২ ক্যারাটের গয়নার সোনার প্রতি ১০ গ্রামের দাম হয়েছে ৪৫ হাজার ৭৫০ টাকা। তবে এক সপ্তাহ আগে গত সোমবারের তুলনায়ও কমে দামে সোনা বিক্রি হয়েছে। গত সোমবার ২২ ক্যারাট সোনার ১০ গ্রামের দাম ছিল ৪৫ হাজার ৫৫০ টাকা। একই পরিমাণ ২৪ ক্যারাট সোনার দর ছিল ৪৮ হাজার ২৫০ টাকা।

ভারতে গতকাল রূপার দাম ছিল কেজি ৬০ হাজার ২৫০ টাকা।

/টিএন/

Comments are closed.