rockland bd

কাশ্মিরের মুখ্যমন্ত্রীর হেলিকপ্টারে ‘গুলি করেছে ভারতের সেনারা’

0

বিদেশ ডেস্ক-


পাকিস্তানের দখলে থাকা কাশ্মিরের মুখ্যমন্ত্রী রাজা ফারুক হায়দারকে বহন করছিল পাকিস্তানের একটি হেলিকপ্টার। তাকে নিয়ে হেলিকপ্টারটি কাশ্মিরের ওপর দিয়ে চক্কর দিচ্ছিল। এ সময় তারা নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম না করলেও তাদের দিকে ভারতের সেনাবাহিনী হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে পাকিস্তান।
তাদের দাবি, ওই হেলিকপ্টারটি ভারতের আকাশসীমা লঙ্ঘন করে নি। নিয়ন্ত্রণরেখার কাছাকাছি যেতেই হেলিকপ্টারটির দিকে গুলি করে ভারতীয় সেনারা। পাকিস্তানের ডন নিউজ বলেছে, ঘটনার সময় ফারুক হায়দার ও তার দু’জন মন্ত্রী ছিলেন ওই হেলিকপ্টারে। আব্বাসপুর গ্রামে হেলিকপ্টারটি থাকতেই তাদের দিকে গুলি করে ভারতীয়রা।
পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের এক কর্মকর্তা বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রী ফারুক তার মন্ত্রীপরিষদের এক সদস্যের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। ওই সদস্যের এক ভাই মারা গেছেন। তিনি সেখানেই যাচ্ছিলেন। ডন নিউজকে ফারুক হায়দার বলেছেন, তাদের হেলিকপ্টারটি পাকিস্তানি আকাশসীমার ভিতরেই ছিল। তার ভাষায়, এ সময় আমাদের হেলিকপ্টারে অকস্মাৎ গুলি করে ভারতীয় সেনারা।
হেলিকপ্টারটি এ সময় জিরো লাইনের খুব কাছে ছিল। কেন তিনি এভাবে ওই এলাকায় যাওয়ার আগে ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন নি। এমন প্রশ্নের উত্তরে ফারুক হায়দার বলেছেন, তিনি একটি বেসামরিক হেলিকপ্টারে করে যাচ্ছিলেন। এ জন্য কোনো প্রয়োজন বোধ করেন নি। এর আগেও তিনি ওই এলাকা সফরে গিয়েছেন। তবে এবারের মতো ঘটনা এর আগে কখনো ঘটেনি।
তবে ভারত কর্তৃপক্ষ রোববার বলেছে, ওই হেলিকপ্টারটি নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করে ভারতীয় আকাশসীমার ২৫০ মিটার ভিতরে প্রবেশ করেছিল। এ বিষয়ে পাকিস্তানের কাছে প্রতিবাদ জানাবে ভারত।
এরই মধ্যে ওই ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজ ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ও পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশির মধ্যে নিউ ইয়র্কে আলোচনা বাতিল হওয়ার মাত্র কয়েকদিন পরেই এ ঘটনা ঘটলো।

বাংলাটুডে২৪/এবিএস

Comments are closed.